চট্টগ্রাম বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১০:২১ পিএম

অনলাইন ডেস্ক

ভাইয়ের পক্ষে হুইপ কন্যার আবেগী স্ট্যাটাস

জাতীয় সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরীর পুত্র নাজমুল করিম চৌধুরী শারুনের এ কে -৪৭ চালনার একটি ভিডিও শুক্রবার ভাইরাল হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নিয়ে সামাজিক ও রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচনা-সমালোচনা অব্যাহত আছে।

এই আলোচনার মধ্যেই আজ শনিবার বাংলাদেশের একটি জাতীয় দৈনিকে ‘অস্ত্র ও মদ বিলাস’ নামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।  এ প্রতিবেদন নিয়ে হুইপ কন্যা তাহমিনা চৌধুরী শর্মি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানে তিনি প্রশ্ন তুলেন ‘আপনাদের বিবেক কোথায় হারিয়ে গেছে? আমার ভাইয়ের ব্যাপারে একের পর এক মিথ্যা অপবাদ দেখে আমি থাকতে পারলাম না। তিনি বলেন, এটা তো সেন্ট ব্রান্ডিতে (san-benedetto) ব্রান্ডের পানির বোতল। যেটা রাশিয়ার একটি পানির বোতল। যার ১২টি বোতলের দাম ৩১ ডলার।

আপনার বলেন কোন পাগলও কি নিজের মদ খাওয়ার ছবি নিজের ফেসবুকে আপলোড দেই? আপনারা দয়া করে গুগলে সার্চ করুন তাহলে জেনে যাবেন এটা মদ নাকি পানির বোতল। আমার ভাইকে চিনেন জানেন এমন যদি একটা মানুষ কোনদিন প্রমাণসহ আমাকে বলতে পারেন শারুন চৌধুরীকে কোনদিন সিগারেট, মদ কিংবা কোন নেশাদ্রব্য সেবন করতে দেখেছেন, শপথ করে বলছি – নাকে খত দিব আমি।’

তিনি আরো বলেন, আমার ভাইয়ের উন্নতিতে ঈর্ষাপরায়ণ একটি মহল যা-তা তার নামে বলে যাচ্ছে আর আপনারা তা সত্যি বলে মেনে নিচ্ছেন? জানি সব মিথ্যার চাপে আমার এই সত্যের কোন মূল্য নেই। তাও নিজের বিবেকের কাছে হেরে যেতে চাই নি।’

 

 

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত দুর্নীতিবিরোধী অভিযান নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলে ব্যাপক নিন্দিত হন হুইপ শামসুল। এরপর তার পুত্র শারুনের বিরুদ্ধে তারই পিতৃতুল্য প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ও চট্টগ্রাম আবাহনীর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা দিদারুল আলম চৌধুরীকে টেলিফোনে অশ্রাব্য বাক্যবাণের অভিযোগও উঠে। সেই ভিডিও ভাইলাল হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই ভাইরাল হয় অস্ত্র চালনার এই ভিডিও।  আর এ ভিডিও নিয়ে আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ে নানান বিপাকে পড়েছেন নেতা কর্মীরা।

 

পূর্বকোণ/পি

The Post Viewed By: 26181 People

সম্পর্কিত পোস্ট