চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত রোহিঙ্গা দম্পতি

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা মাদকব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ি এলাকায় আজ রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) ভোরে এ ঘটনা ঘটে।  নিহত দু’জন হলেন, টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই ব্লকের দিল মোহাম্মদ (৩২) ও তার স্ত্রী জাহেদা (২২)।  এ ঘটনায় পুলিশের এক সহকারী উপ-পরির্দশকসহ (এএসআই) তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলে দাবি পুলিশের। টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশ লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় একটি দেশীয় তৈরি থ্রি কোয়াটার বন্দুকসহ ডাকাত দলের সঙ্গে জড়িত ও মাদককারবারি জাহেদা এবং দিল মোহাম্মদ নামে রোহিঙ্গা দম্পতিকে সহযোগী শফি উল্লাহসহ আটক করা হয়। 

তিনি আরো জানান, পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ভোরে লেদার ২৪ নম্বর ক্যাম্পের সি-ব্লক এলাকায় গোপন স্থানে লুকিয়ে রাখা অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দিল মোহাম্মদের সহযোগী ডাকাত দলের সদস্যরা আটকদের ছিনিয়ে নেয়ার জন্য পুলিশ সদস্যদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের গুলি বিনিময়কালে দিল মোহাম্মদ ও তার স্ত্রী জাহেদা গুলিবিদ্ধ হন। পরে তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে দু’টি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও নয় রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয় বলে জানান তিনি।

এ ঘটনায় পুলিশের তিন সদস্য আহত হয়েছেন জানিয়ে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন,  আহতরা হলেন; এএসআই নিজাম, কনস্টেবল শাহাদত ও সুদর্শন। আহতদের টেকনাফ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ওসি প্রদীপ আরো জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং নিহত দু’জনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

পূর্বকোণ/ময়মী

The Post Viewed By: 326 People

সম্পর্কিত পোস্ট