চট্টগ্রাম রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:০৫ পূর্বাহ্ণ

কর্ণফুলী সংবাদদাতা , কর্ণফুলী

কর্ণফুলীতে ট্রাফিক সভায় অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার অলক

সবার সহযোগিতা ও আন্তরিকতা থাকলে পরিবহন সেক্টরে শৃঙ্খলা ফিরে আসবে

সিএমপির ট্রাফিক বিভাগ (বন্দর জোন) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার অলক বিশ্বাস বলেছেন, আমাদের দেশে পরিবহন সেক্টরে বিশৃংখলা ও অনিয়মের জন্য চালকসহ সবাই দায়ী। সবার সহযোগিতা ও আন্তরিকতা থাকলে পরিবহন সেক্টরে অবশ্যই শৃংখলা ফিরে আসবে।

ট্রাফিক আইন না মানার কারণে বিভিন্ন জায়গায় সড়ক দুর্ঘটনা, যানজট ও পরিবহণ ক্ষেত্রে বিশৃংখলা দেখা দেয়। আপনারা চালক ও মালিকরা চাইলেই এসব ক্ষেত্রে শৃংখলা ফিরেয়ে আনতে পারবেন। গাড়ির ফিটনেস রক্ষা করা, ওভারটেকিং করা থেকে বিরত থাকা, গাড়ির কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইন্সেস সাথে রাখা, অযথা হর্ণ বাজানো থেকে বিরত থাকাসহ সকল নিয়ম মেনে চললে পরিবহন সেক্টরে অবশ্যই শংখলা ফিরে আসবে। এতে যাত্রী, চালক ও মালিকসহ সবার জন্য এর সুফল বয়ে আসবে। তিনি গতকাল শনিবার দুপুরে কর্ণফুলী উপজেলার মইজ্জ্যার টেক এলাকায় মালিক শ্রমিক ও চালকদের উদ্দেশ্যে আয়োজিত ‘ট্রাফিক সচেতনতামূলক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

সিএমপি কর্ণফুলীর টিআই মোস্তফা আল মামুন এর সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিএমপি ট্রাফিক বিভাগ বন্দর প্রশাসনের টিআই শওকত হোসেন, ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি সাবের হোসেন বাবুল, কর্ণফুলী শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ঈসমাইল হোসেন মুসলমান, সিএনজি শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেস্টা ইমতিয়াজ উদ্দীন, ব্যবসায়ী নেতা নেজাম উদ্দিন, ট্রেড ইউনিয়ন সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম রেজা, সিএনজি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. হানিফ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফি, মো. সৈয়দ, আবদুল জলিল লিটন।
সভা শেষে সিএমপির ট্রাফিক বিভাগ (বন্দর জোন) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার অলক বিশ্বাস চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে চালকদের মাঝে বিভিন্ন সচেতনতামূলক হ্যান্ড বিল বিলি করেন।

এর আগে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ৫০টি ফিটনেস বিহীন, ত্রুটিপূর্ণ কাগজপত্র বিভিন্ন ধরণের যানবাহন ও হেলমেট বিহীন মোটর সাইকেল চালকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

The Post Viewed By: 41 People

সম্পর্কিত পোস্ট