চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:১৮ এএম

মুরিদুল আলম রাজনীতির অঙ্গনে আলোর দিশারী হয়ে থাকবেন’

‘দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেন, ছাত্রলীগকে চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য ষাট দশকে সবচেয়ে বেশী ভূমিকা রেখেছেন মুরিদুল আলম। চট্টগ্রামে বাঙালি জাতীয়তাবাদী আন্দোলনে তার ভূমিকা উদাহরণ হয়ে থাকবে। বর্তমান অবক্ষয়ের যুগে, শহীদ মুরিদুল আলম রাজনীতির পরিম-লে আলোর দিশারী হয়ে থাকবেন।গত ১৯ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবস্থ বঙ্গবন্ধু হলে ৬০ দশকের কিংবদন্তী ছাত্রনেতা, ৬২’র ছাত্র আন্দোলনের প্রাণপুরুষ, ছাত্রলীগ পুনর্গঠনের উদ্যোক্তা, মেধাবী রাজনীতিক, বৃহত্তর চট্টগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সমাজকল্যাণ সম্পাদক, মুক্তিযুদ্ধের মহান সংগঠক, বীর শহীদ মুরিদুল আলমের ৪৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় তিনি একথা বলেন। নজরুল ইসলাম চৌধুরী এম পি বলেন, চন্দনাইশের বরমা হতে উঠে আসা মেধাবী ছাত্র শহীদ মুরিদুল আলম। স্কুল জীবনে ছাত্রলীগ করার অপরাধে পুলিশি হয়রানি ও পিতার শাসনকে তিনি উপেক্ষা করে রাজনীতি করেছেন। চট্টগ্রাম কলেজের প্রথম জি এস নির্বাচিত হন। মহান মুক্তিযুদ্ধে ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি। বিজয়ের কিছুদিন আগে তাকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। তার মতো প্রজ্ঞাবান ও গৌরবান্বিত মানুষের মৃত্যু নেই। ওয়াসিকা আয়েশা খান এম পি বলেন, অসম্ভব ভদ্র, ন¤্র, রাজনীতি সচেতন, দেশের প্রতি ভালবাসার অনন্য উদাহরণ তিনি রেখে গেছেন। আজ তাঁর মত আদর্শ ও চরিত্রবান নেতার অভাব। দলকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে মুরিদুল আলমদের মতো নেতা-কর্মীদের সংখ্যা বাড়াতে হবে। দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আবুল কালাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপ-দপ্তর সম্পাদক বিজয় কুমার বড়–য়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন হাবিবুর রহমান, নুরুন্নবী চৌধুরী, অধ্যাপক মাঈন উদ্দিন, রাশেদ মহিউদ্দিন, সাবেক এম পি সাবিহা মুছা, সাবেক এম পি চেমন আরা তৈয়ব, এডভোকেট মির্জা কছির উদ্দিন, এডভোকেট জহির উদ্দিন, প্রদীপ কুমার দাশ, প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী প্রমুখ।-বিজ্ঞপ্তি

The Post Viewed By: 47 People

সম্পর্কিত পোস্ট