চট্টগ্রাম বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:১৫ এএম

জাহেদুল আলম হ রাউজান

কারা হচ্ছেন সভাপতি ও সম্পাদক, আলোচনা সর্বত্র

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে উৎসবের আমেজ, সাজসাজ রব চারিদিকে

কাল রাউজান উপজেলা আ. লীগের সম্মেলন

আগামীকাল শনিবার বহুল প্রতীক্ষিত, আলোচিত রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিল ও ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। এ সম্মেলন ঘিরে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। সম্মেলন স্থল, আশ-পাশ এবং রাঙামাটি সড়ক ও এর সংযোগ সড়কগুলোতে সাজ সাজ রব অবস্থা। এ সম্মেলনকেন্দ্র করে সৌন্দর্য, সুশৃংখল করার জন্য দীর্ঘ প্রায় একমাস ধরে নানা প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ তথা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি। প্রাণচাঞ্চল্যে সৃষ্টি হয়েছে আওয়ামী লীগ এবং ভ্রাতৃপ্রতীম দলগুলোর নেতাকর্মিদের মাঝে। বর্ণাঢ্য এ সম্মেলনের যোগ দিতে ১৪ ইউনিয়ন, পৌরসভার ৯ ওয়ার্ডের দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মিরা নানা প্রস্তুতি নিয়েছেন। বিভিন্নসূত্রে আলাপ করে জানা যায়, ৭ বছর পর রাউজান আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সর্বশেষ গত ২০১২ সালে দলটির সম্মেলন তথা কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এ কারণে এবারের সম্মেলন নিয়ে আনন্দ-উৎসবের সৃষ্টি হয়েছে। সম্মেলনের দিনক্ষণ খুব ঘনিয়ে আসলেও কোন দুইজন হচ্ছেন দলের সভাপতি-

সম্পাদক হতে যাচ্ছেন সে বিষয়ে কেউ নিশ্চিত করতে পারছে না। তিনবছরের জন্য কে হচ্ছেন রাউজান আওয়ামী লীগের দুই কা-ারী, তা নিয়ে ধুম্রজালে সৃষ্টি হয়েছে। এ নিয়ে জল্পনা-কল্পনার শেষ নেই পুরো রাউজানের বিভিন্নস্তুরের নেতাকর্মী এবং উৎসুক সাধারণ মানুষের মধ্যে। তবে অনেকে সভাপতি-সম্পাদক নিয়ে নানা হিসেব কষছেন। কেউ বলছেন উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল ওহাব সভাপতি হলে সাধারণ সম্পাদক হবেন অধ্যক্ষ কপিল উদ্দিন চৌধুরী। আবার কেউ বলছেন অধ্যক্ষ কপিল উদ্দিন চৌধুরী সভাপতি হলে সাধারণ সম্পাদক হতে পারেন উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম কিংবা উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক বশির উদ্দিন খান, বর্তমান সদস্য ও সাবেক সভাপতি পুত্র সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, নোয়াজিষপুর ইউপি চেয়ারম্যান সরোয়ার্দী সিকদার, বর্তমান দপ্তর সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরীর যে কেউ। সাধারণ সম্পাদকের সম্ভাব্য নামের তালিকায় বর্তমান যুগ্ন সম্পাদক ভুপেশ বড়–য়ার নামও শোনা যাচ্ছে। তবে দুই পদের ব্যাপারে সবকিছু নির্ভর করছে দলটির সর্বোচ্চ নেতা, উত্তরজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপির উপর। দলের অনেক নেতাকর্মি জানিয়েছেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন সভাপতি-সম্পাদককের ব্যাপারে তিনি ইতিমধ্যে কাউকে ইঙ্গিত বা আশা দেননি কিংবা নিজের ইচ্ছার কথা কারো সঙ্গে এখনও প্রকাশ্যে শেয়ার করেননি। তবে তৃণমূলের নেতাকর্মিরা এক্ষেত্রে তার নির্দেশনার আশায় রয়েছেন। এদিকে বিভিন্নজনের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদক নির্ধারণের ক্ষেত্রে আগামীবছর অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনের প্রার্থীতার হিসেবে হতে পারে। কেউ কেউ ধারণা করেছেন, যারা আগামী নির্বাচনে পৌর প্রধান (মেয়র) পদের সম্ভাব্য প্রার্থী, তাদের দলের দুই মূল পদের বাইরে রাখা হতে পারে।

সূত্রে জানা যায়, এ কাউন্সিলে ২৮বছর পর নতুন সভাপতি, ২২ বছর পর সাধারণ সম্পাদক পাচ্ছে রাউজান আওয়ামী লীগ। তবে যে দুজন সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক হোক না কেন এবার দুইজনই হবে সম্পূর্ণ নতুন মুখ।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক আবদুল ওহাব সাংবাদিকদের জানান, সম্মেলনে মঞ্চে থাকবে ভিন্ন ভিন্ন আয়োজন। ফুটিয়ে তোলা হবে আওয়ামী লীগের ইতিহাস ঐতিহ্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ব শেখ হাসিনার সফল দেশ পরিচালনার বাস্তব চিত্র ফুটিয়ে তোলা হবে সম্মলনে। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটর নেতৃবৃন্দ বলেন, এবারে সম্মেলন হবে রাউজানের ইতিহাসের একটি অংশ। সদস্য সচিব আনোয়ারুল ইসলাম বলেন ‘রাউজানের সাংসদ পরিচ্ছন্ন সম্মলনের মাধ্যমে দক্ষ নেতৃত্ব সৃষ্টি করবেন। সম্মেলনের মাধ্যমে রাউজান আওয়ামী লীগের ইতিহাস রচিত হবে। সম্মেলনে উঠে আসবে তথ্য ভিক্তিক চিত্র।’ তিনি বলেন ‘সম্মেলন সফল করতে নানাবিদ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীরা নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে সম্মেলন সফল করতে।’ অর্থ উপ কমিটির আহবায়ক জমির উদ্দিন পারভেজ বলেন, ‘বড় বাজেট নিয়ে উৎসবমূখর পরিবেশে রাউজান আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।’ যুগ্ন সম্পাদক বশির উদ্দিন খান বলেন ‘সবাই মিলে একটি সুন্দর সম্মেলন করার জন্য আমরা চেষ্ঠা করছি। আমরা ফজলে করিম এমপির নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ।’ সাজসজ্জা উপ কমিটির আহবায়ক সাইফুল ইসলাম রানা বলেন ‘স্বাধীনতার নেতৃত্বদানকারী গৌরবময় প্রাচীনতম সংগঠন আওয়ামী লীগ রাউজান উপজেলা শাখার সম্মেলন হবে সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে।’ জানা যায়, সম্মেলনস্থলে লাগানো হয়েছে সিসি ক্যামেরা। বিশাল প্যান্ডেল, সাজসজ্জাসহ সকল প্রস্তুতি ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে বলে জানান আয়োজক কমিটি। সম্মেলন উপলক্ষে রাঙামাটি সড়কের দুইপাশে গাছে, পার্শ্ববর্তী ভবনগুলোতে গোলাপী রং লাগানো হয়েছে। জানা যায়, শনিবার বেলা আড়াইটায় রাউজান সরকারি কলেজ মাঠে এ সম্মেলন শুরু হবে। তার আগে দলীয় নেতাকর্মী ও ডেলিগেডদের স্ব স্ব আসন গ্রহণ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২১ সেপ্টেম্বর (শনিবার) উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন এ সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। বিশেষ অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ এমপি। প্রধান বক্তা থাকবেন উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম. এ সালাম।

এদিকে রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন সুন্দর, সফল করতে গত বুধবার বিকেলে উপজেলার ১৪ ইউনিয়নের ১২৬ ওয়ার্ড ও পৌরসভার ৯ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদকের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেছে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি। উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব আনোয়ারুল ইসলামের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দিদারুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বশির উদ্দিন খান, ভূপেশ বড়ুয়া, শাহা আলম চৌধুরী, নুরুল আবছার মিয়া, ইরফান আহমদ চৌধুরী, কামরুল ইসলাম বাহাদুর, স্বপন দাশগুপ্ত, এডভোকেট সমীর দাশগুপ্ত, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, স্বপন বড়ুয়া, জাফর আহম্মদ, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, নজরুল ইসলাম চৌধুরী, নুরুল ইসলাম চৌধুরী শাহাজান, আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ, বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, আবদুর রহমান চৌধুরী, সুকুমার বড়ুয়া, রোকন উদ্দিন, মোজাফফর আহমদ, দোস্ত মোহাম্মদ খান, মোজাফফর হোসেন তালুকদার, জানে আলম জনি, আবদুস ছালাম, জসিম উদ্দিন, সুমন দে, মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ খান চৌধুরী, কাউন্সিলন এডভোকেট দিলীপ কুমার চৌধুরী, আলহাজ নুরুল আমিন, মোসলেম উদ্দিন চৌধুরী, রুনু ভট্টাচার্য্য, সাইফুদ্দিন চৌধুরী সাবু, আবদুল লতিফ, সারজু মোহাম্মদ নাছের, আহসান হাবিব চৌধুরী, শওকত হোসেন, বাবুল মিয়া মেম্বার, আলমগীর কবীর চৌধুরী, নুরুন্নবী, মো. আলমগীর, বাবর উদ্দিন, আজম খান, জান্নাতুল ফেরদৌস ডলি, জেবুন্নেছা, নাছিমা আকতার, সেলিম উদ্দিন, নাছির উদ্দিন প্রমুখ।

The Post Viewed By: 128 People

সম্পর্কিত পোস্ট