চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১১:১৮ পিএম

কক্সবাজার সংবাদদাতা

চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরা হলো না মা-ছেলের

কক্সবাজার থেকে চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফেরার পথে টেকনাফের মেরিন ড্রাইভ সড়কে চারপোকা-সিএনজি টেক্সীর সংঘর্ষে মা-ছেলে নিহত হয়েছে। এ সময় ছেলের বাবাও আহত হন। বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে কক্সবাজার থেকে মেরিন ড্রাইভ সড়ক পথে মারিশবনিয়া এলাকায় বরাবর পৌঁছলে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হচ্ছে টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকার জকির আহমদের স্ত্রী সমজিদা (৩৫) ও নিহতের এক বছরের শিশু পুত্র শোয়াইব এবং আহত ব্যক্তি নিহত শিশুর বাবা জকির আহমদ (৪০)।
প্রত্যক্ষদর্শী ও খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুধবার সকালে অসুস্থ শিশু শোয়াইবকে নিয়ে কক্সবাজারে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন জকির। সাথে স্ত্রী সমজিদাকেও নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে চিকিৎসা শেষ করে বৃহস্পতিবার আছরের পর সিএনজি যোগে টেকনাফ বাড়ির উদ্দেশ্যে ফিরছিলেন। ফেরার পথে সন্ধা সাড়ে ৬টার দিকে মারিশবনিয়া এলাকা বরাবর পৌঁছলে বিপরীতমুখী ছারপোকার গাড়ীর সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলে সনিজদা ও তার শিশু পুত্র শোয়াইব এবং সনজিদার স্বামী জকির আহত হয়। আহতদের দ্রুত টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সনজিদাকে মৃত ঘোষণা করেন।
অপরদিকে, উন্নত চিকিৎসার জন্য গুরুতর আহত শিশু শোয়াইবকে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে শোয়াইবের মৃত্যু ঘটে বলে তার পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে।
পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িটি জব্দ করেছে বলে জানা গেছে।
পূর্বকোণ/আরাফাত-রাশেদ

The Post Viewed By: 256 People

সম্পর্কিত পোস্ট