চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:২১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাঁদা না দেয়ার জের

বড় ভাইয়ের সামনে ছোট ভাইকে ছুরি মেরে হত্যা

চাহিদা অনুযায়ী চাঁদা না পাওয়ায় বড় ভাইয়ের সামনে সন্ত্রাসীরা হত্যা করেছে ছোট ভাইকে। গতকাল (রবিবার) সন্ধ্যায় নগরীর চান্দগাঁও থানার পাটানিয়াগোদা দর্জিপাড়ায় এ ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। নিহত জিয়াদ হোসেন দর্জি পাড়ার মৃত মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মোহাম্মদ বিপ্লব বলেন, জিয়াদ-জাহিদ ওরা দুই ভাই। আমরা তিনজনে মিলে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ডিশের ব্যবসা করছি। বিগত একমাস একইপাড়ার ছেলে রাসেল, আরমান ও আজাদ ডিশের ব্যবসায় শেয়ার দিতে বলছিলো। আমরা রাজি হইনি। একপর্যায়ে প্রতিমাসে দশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। আমি প্রতিমাসে তিনহাজার টাকা দিতে চাইলে তারা রাজি হয়নি। ওদের মধ্যে রাসেল স্থানীয় যুবলীগ নেতা এসরারুল হক ও আরমান আর আজাদ চকবাজারের নুুরুল মোস্তফা টিনুর অনুসারী।

হত্যার ঘটনা বর্ণনা দিতে গিয়ে বিপ্লব বলেন, শনিবার রাতে তারা আমাদের ডিশের তারগুলো কেটে দেয়। গতকাল (রবিবার) সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ছয়টায় দর্জিপাড়ায় আমরা তিনজনে কাটা তারগুলো মেরামত করছিলাম। এরমধ্যে রাসেল, আরমান ও আজাদ এসে বলেন, মাসে দশহাজার টাকা না দিলে তার লাগাতে পারবে না। এ নিয়ে ওদের সাথে আমার কথা কাটাকাটি হয়। ইতিমধ্যে স্থানীয় লোকজনও জড়ো হয়। একপর্যায়ে রাসেল তার কোমরে থাকা ছুরি বের করে আমাকে মারতে চাইলে স্থানীয় একজন মুরব্বি আমাকে টান মারে। এর পরপরই জিয়াদকে ছুরিকাঘাত করে রাসেল। রক্তাক্ত অবস্থায় জিয়াদকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। নিহত জিয়াদের বড় ভাই জাহিদ জানান, আমার চোখের সামনে ছোটভাইকে ছুরি মেরে হত্যা করেছে। বেশ কয়দিন ধরে তারা আমাদের কাছে চাঁদা দাবি করছিলো।

চান্দগাঁও থানার পরিদর্শক (ওসি) মো. আবুল কালাম জানান, প্রাথমিক তদন্তে আমরা জানতে পেরেছি ডিশ ব্যবসাকে কেন্দ্র করে জিয়াদ নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। স্থানীয় লোকজন তাকে চমেক হাসপতালে নিয়ে যাবার পথে মারা যায়। যারা হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তাদের নাম ঠিকানা আমরা পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

The Post Viewed By: 1111 People

সম্পর্কিত পোস্ট