চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা , পটিয়া

পটিয়ায় বিপুল পরিমাণ চোরাই দাহ্য পদার্থ উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

র‌্যাব-৭ অভিযান চালিয়ে পটিয়া থেকে বিপুল পরিমাণ চোরাই দাহ্য পদার্থ উদ্ধার করেছে। তারমধ্যে রয়েছে ১৩ হাজার লিটার অকটেন, ১ হাজার ৮ শ লিটার ইঞ্জিন অয়েল, ৬ হাজার ৪শ লিটার ডিজেল, ৪ হাজার লিটার কেরোসিন ও ৮ শ লিটার থিনার। যার আনুমানিক মূল্য ২২ লাখ ২৩ হাজার টাকা। চোরাই দাহ্য পদার্থ বিক্রি ও মজুদ করার অপরাধে পটিয়া উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের মনসা গ্রামের মৃত অলি আহমদের পুত্র মো. ইসমাইল (৩২) কে র‌্যাব-৭ গ্রেপ্তার করে গতকাল (রবিবার) আদালতে প্রেরণ করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মনসা এলাকায় মেসার্স বিসমিল্লাহ এন্টারপ্রাইজ নামের একটি দোকানে দীর্ঘদিন ধরে চোরাই দাহ্য পদার্থ ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন, থিনারসহ বিভিন্ন চোরাই মালামাল বিক্রি হয়ে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭ শনিবার দুপুরে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে এসব চোরাই দাহ্য পদার্থ উদ্ধার করে। তম্মধ্যে মোট ১৩০ ড্রাম ভর্তি দাহ্য পদার্থ ও ২১টি খালি ড্রাম উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব-৭ এর ডিএডি ওয়ারেন্ট অফিসার আবদুল মতিন বাদি হয়ে পটিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে পটিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় একটি সিন্ডিকেট চোরাই তেলসহ বিভিন্ন অবৈধ ব্যবসা করে যাচ্ছে। সম্প্রতি মেঘনা পেট্রোলিয়াম থেকে তেল চুরি-পাচারের সময় পটিয়া থানা পুলিশ তেলবাহী একটি গাড়ি আটক করে মামলা দেয়। তেল চোর সিন্ডিকেটের নামের তালিকা সংগ্রহ চলছে। সিন্ডিকেটটি চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়ক হয়ে দক্ষিণ চট্টগ্রাম ছাড়াও কক্সবাজার ও বান্দরবান এলাকায় চোরাই এসব তেল পাচার করে যাচ্ছে। দাহ্য পদার্থ ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন, থিনার উদ্ধারের ঘটনায় র‌্যাব বাদি হয়ে পটিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

The Post Viewed By: 49 People

সম্পর্কিত পোস্ট