চট্টগ্রাম শনিবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চাহিদা বাড়ছে আখের

চন্দনাইশ ও সাতকানিয়া থেকে নগরীর ফিরিঙ্গী বাজারে প্রচুর আখ আসতে শুরু করেছে। এছাড়াও, পার্বত্য অঞ্চল খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি ও বান্দরবান থেকেও ট্রাকে ট্রাকে আসছে। তবে পাহাড়ি অঞ্চলের আখ আসবে আরো ১৫-২০ দিন পর। প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ ট্রাক আখ আসছে বলে জানান ফিরিঙ্গী বাজার ফল আড়ত মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাজের বাবুল। চাহিদা থাকায় ফিরিঙ্গী বাজার থেকে নগরীসহ বিভিন্ন উপজেলায় যাচ্ছে এ আখ। কোথাও পুরো কিংবা পিস করে কেটে, আর কোথাও জুস বানিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে। নির্ভেজাল ও স্বাস্থ্য সম্মত হওয়ায় নগরীর প্রতিটি স্থানে এর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। বিশেষ করে বিভিন্ন শপিং মল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে আখের জুস বিক্রি করা হয়।

নগরীর কোরবানীগঞ্জে অবস্থিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কায়সার নিলুফার কলেজ। কলেজের সামনে দাঁড়িয়ে একদল শিক্ষার্থী আখের জুস খাচ্ছেন। তাদের সাথে কথা হলে জানান, অন্যান্য জুসের চেয়ে আখের জুসের একদিকে যেমন দামে সস্তা, অন্যদিকে মানেও ভালো। তাই অন্যান্য জুসের তুলনায় আখের জুস আমাদের কাছে অনেক প্রিয়। এছাড়া, অন্য জুসের দাম যেখানে ৫০ থেকে ১০০ টাকা, সেখানে আখের জুস ১৫ থেকে ২০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে বলে জানান শিক্ষার্থীরা।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে ফিরিঙ্গী বাজার ফল আড়ত মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাজের বাবুল জানান, চট্টগ্রামের মধ্যে চন্দনাইশ, সাতকানিয়া ও দোহাজারি থেকে প্রতিদিন বিপুল সংখ্যক আখ আসছে। চট্টগ্রামের বাইরে খাগড়াছড়ি থেকেও প্রচুর পরিমাণে আখ আসে। এছাড়া, রাঙামাটি ও বান্দরবান থেকেও কিছু কিছু আখ আসে চট্টগ্রামে। তিনি আরো বলেন, এখন বাজারে যে আখগুলো পাওয়া যাচ্ছে সেগুলো চন্দনাইশ, সাতকানিয়া, দোহাজারির। এই আখের সাইজ পাহাড়ি আখের চেয়ে বড়। পাহাড়ি আখ বাজারে আসতে আরো ১৫ দিন থেকে ২০ দিন সময় লাগবে। তবে এগুলো চট্টগ্রামের আখের চেয়ে সাইজ ছোট। প্রতিদিন ৮ থেকে ১০ গাড়ি আখ ফিরিঙ্গী বাজার আড়তে আসে। প্রতি ১০০ পিস আখের দাম পড়ে ১৬০০ থেকে ২৪০০ টাকা পর্যন্ত। এগুলো খুচরা পর্যায়ে বিভিন্ন দামে বিক্রি হচ্ছে। স্বাস্থ্য সম্মত ও ভেজালমুক্ত হওয়ায় আখের ভালো চাহিদা রয়েছে।

The Post Viewed By: 404 People

সম্পর্কিত পোস্ট