চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:১১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেড়ে গেছে ব্রয়লার মুরগির দাম কমেছে সবজি ও মাছ

একমাস ধরে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা ধরে। কিন্তু কোরবানির আমেজ কাটতে না কাটতেই ফের দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির। আবার বিগত একমাস ধরে বিভিন্ন কারণে বাজারে সবজির দাম ছিল বেশি। সাতদিন আগেও সবজির বাজার উর্দ্ধমুখি ছিল। কিন্তু কাল চকবাজার ঘুরে দেখা যায় বাজারে সবজি ও সমুদ্রিক মাছের সরবরাহ বাড়ায় দাম কমেছে সবজি ও মাছের। চকবাজারের সবজি বিক্রেতা মো. জালাল বলেন,
। ৯ম পৃষ্ঠার ১ম ক.­

দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আড়তে সবজি আসছে তাই গত সপ্তাহের চেয়ে প্রায় সব সবজিতে ১৫-২০ টাকা করে দাম কমেছে। সাতদিন আগে কাঁচামরিচ বিক্রি হয়েছে ১৩০-১৫০ টাকায়। কিন্তু কাল বাজারে দাম কমে প্রতি কেজি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৯০-১০০ টাকা দরে। পটল বিক্রি হচ্ছে ৩০-৪০ টাকা দরে। কাঁকরোল ৫০-৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। বরবটির ৫০ টাকায় । তিতকরলা ৫০ টাকা, ঝিঙা ৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৫০-৪০ টাকা, ঢেড়স ৪০-৫০ টাকা, পেঁপে ২৫-৩০ টাকা, গাজর ৪০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২৫-৩০ টাকা, কচু ছড়া ৫০ টাকা, কচুর ফুল ৫০ টাকা, কচুর লতি ৪০ টাকা, শসা ৩০ টাকা ও আলু ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। সবজি বিক্রেতা মো. জালাল বলেন, আড়তে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকেই সবজি এসেছে। চট্টগ্রামের মধ্যে পার্বত্য জেলাগুলো ও দোহাজারী, পটিয়া, কক্সবাজার ও সীতাকু- থেকেও আসছে। আবার পশ্চিম বঙ্গের যশোর, রাজশাহী, কুমিল্লাসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে আসছে সবজি। তাই দাম কমেছে সবজির। শুধু সবজির দাম নয়, কমেছে মাছের দামও। মাছের বাজারে দেখা যায়, দেশি জীবিত রুই গত একমাসের চেয়ে ৫০ টাকা দাম কমেছে। গত বাজারেও প্রতি কেজি দেশি রুই বিক্রি হয়েছে ৩৫০ টাকা দরে। কিন্তু কাল বাজারে ২৮০-৩০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি রুই। দাম কমেছে ভারতীয় আমদানি করা রুই মাছও। এগুলোও বিক্রি হচ্ছে আকার ভেদে ১৯০, ২০০ ও ২৩০ টাকা ধরে। র্ফামের রুই বিক্রি হচ্ছে ২৫০-২৬০ টাকা দরে। দেশি কাতল বিক্রি হচ্ছে (জীবত) ৪১০ টাকায়। তেলাপিয়া বিক্রি হচ্ছে ১৩০-১৪০ টাকায়, পাঙ্গাস ১২০-১৩০ টাকা ও আকার বেড়ে দাম কমেছে ইলিশেরও। ইলিশ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪শ টাকা থেকে ৮শ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন আকারের ইলিশ। বাজারে মাছ বিক্রেতারা বলেন, সমুদ্রে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে তাই বাজারে ইলিশের সরবরাহ অনেক বেশি হওয়ায় দাম কমেছে ইলিশসহ অন্যান্য মাছের। আবার কাপ্তাই ও হেচ্যারী থেকেও বিভিন্ন চাষের মাছ আসছে তাই অন্যান্য মাছেরও দাম কমেছে। গত বাজারে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা। কিন্তু কাল বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগিতে ১৫-২০ টাকা দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৩০-১৩৫ টাকা দরে। পাকিস্থানি মুরগি বিক্রি হচ্ছে আড়াই‘শ থেকে ২৬০ টাকায় ও দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৪‘শ টাকা দরে। প্রতিকেজি গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭’শ টাকায় ও খাসির মাংস ৭৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 148 People

সম্পর্কিত পোস্ট