চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:৩২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

মুচলেকা দিয়ে ছাড় পেলেন দালাল

ঘুষের টাকাসহ সার্ভেয়ার গ্রেপ্তার আনোয়ারায়

দুদকের ফাঁদ

ঘুষের টাকাসহ মো. সহিদুল হক (৩৫) নামে এক ভূমি সার্ভেয়ারকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। গতকাল বুধবার রাত আটটার দিকে আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার সহিদুল হক আনোয়ারা উপজেলার সেটেলমেন্ট অফিসের সার্ভেয়ার হিসেবে কর্মরত। তিনি কুমিল্লা জেলার বাজগড্ডা এলাকার আলী আশ্রাফের ছেলে। দুদক জানায়, সারাদেশে ডিজিটাল ভূমি জরিপের কাজ চলছে। এরমধ্যে আনোয়ারা উপজেলায় নিয়োগ পাওয়া এই ভূমি কর্মকর্তা জমির মালিকদের বিভিন্নভাবে হয়রানিসহ নানা অজুহাতে দীর্ঘদিন থেকেই অর্থ আদায় করে আসছেন। এ বিষয়ে ইমরান হোসেন নামে এক

জমির মালিক দুদকে বিষয়টি জানালে দুদকের ‘ফাঁদ টিম’ অভিযান পরিচালনা করে তাকে ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। একই সময়ে বদি আলম নামে আরেক দালালকে আটক করে দুদক। পরবর্তীতে ওই দালালকে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয় বলে জানান দুদক। বিষয়টি নিশ্চিত করে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়,চট্টগ্রাম-১ এর উপ পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন পূর্বকোণকে বলেন, ‘অভিযোগকারীর মালিকীয় জমির যথাযথ রেকর্ডপত্র থাকা সত্ত্বেও ডিজিটাল খতিয়ানে দখলকৃত জমি বেশি আছে বলে ৭০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে সহিদুল। পরে কাজ হওয়ার আশায় জমির মালিক তাকে পাঁচ হাজার টাকা দেয়। কিন্তু এরপরও কাগজে বিভিন্ন ভুলক্রটি থাকার কথা বলে আরও ঘুষ দাবি করেন তিনি। বিষয়টি দুদককে জানানো হলে দুদকের ফাঁদ টিম গিয়ে ২০ হাজার টাকাসহ সার্ভেয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে উপ-সহকারী পরিচালক মো. হোসাইন শরীফ বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন বলেও জানায় তিনি।
দুদকের এই ফাঁদ টিমে সহকারী পরিচালক জাফর আহমেদ, ফখরুল ইসলাম, সহকারী পরিদর্শক অধীর চন্দ্র নাথ,এএসআই নবীউল ইসলাম, কনেস্টেবল রফিকুল ইসলাম, ফিরোজ মাহমুদ ও ডাটা এন্ট্রি মোয়াজ্জেম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 305 People

সম্পর্কিত পোস্ট