চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৭:১৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

৬ বাসকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা বিআরটিএ’র

নগরীর ইপিজেড মোড়ে বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে আজ বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক এর নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিকাল হলেই ১০ ও ১১ নম্বর রুটের বাসগুলো শেষ গন্তব্যে না গিয়ে মাঝপথ থেকে অর্থাৎ ইপিজেড মোড় থেকে ঘুরিয়ে দেয়। পরে গার্মেন্টসের রিজার্ভ ভাড়া করে যাত্রীদের জিম্মি করে অতিরিক্ত ভাড়া নেয় তারা। এমনকি উঠানামা ২০ টাকাও দাবি করা হয়। আজকের বিকালের অভিযানে এসব অভিযোগের সত্যতা মেলে।

মঞ্জুরুল হক বলেন, বিকাল হলেই ইপিজেড এলাকায় একটা নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। কর্মস্থল ফেরত মানুষ সীমাহীন ভোগান্তির মধ্যে নিপতিত হয়। এ চিত্র বেদনাদায়ক। পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের অসভ্যতার মাত্রা এতোটাই যে, দেশের কোন আইন-কানুনকেই এরা তোয়াক্কা করছে না। মালিকপক্ষের সাথে কথা বললে জানা যায়, চালকদের আমরা কখনোই বলি না গাড়ি মাঝপথ থেকে ঘুরিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া নিতে।

চালকদের জিজ্ঞাসা করলে তারা বলেন, সবাই এরকম করে তাই আমিও করি।

সড়কবিধি মেনে চলার কোন বালাই নাই। এদের এ অসভ্যতার শেষ কোথায়? আজকের অভিযানে বর্ণিত অপরাধসমূহের কারণে ১০ ও ১১ নম্বর রুটের ছয়টি বাসকে ৫৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) নগরীর অক্সিজেন ও বহদ্দারহাট মোড়ে অভিযান চালিয়ে ৩ ও ১০ নম্বর রুটের নয়টি বাসকে ৯৮ হাজার টাকা জরিমানা করেছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস, এম, মনজুরুল হক। সামনেও এ ধরণের অভিযান চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি।

পূর্বকোণ/রাশেদ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 347 People

সম্পর্কিত পোস্ট