চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৬ আগস্ট, ২০১৯ | ২:০৬ এএম

নিজস্ব সংবাদদাতা , সাতকানিয়া

আ. লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত মামলার আসামি নিজেই ধরা দিলেন থানায়

অবশেষে থানায় হাজির হয়ে পুলিশের হাতে ধরা দিলেন সাতকানিয়া উপজেলা আ. লীগ নেতা জানে আলম জামালকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা মামলার একমাত্র আসামি মো. মুছা (৫২)। গতকাল রবিবার সকালে নিজের দোষ স্বীকার করে সাতকানিয়া থানায় হাজির হলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করে।
জানা যায়, গত শুক্রবার দক্ষিণ মাদার্শা বায়তুর রহমান জামে মসজিদে জুমার নামাজ শেষে উপজেলা আ. লীগের সদস্য ও মাদার্শা ইউনিয়নের খামার পাড়ার মৃত মফজল আহমদের ছেলে জানে আলম জামাল বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় মসজিদের পার্শ্ববর্তী একটি ঘর থেকে মাদকাসক্ত অবস্থায় একই ইউনিয়নের দক্ষিণ মাদার্শা ইয়াজর পাড়ার মৃত আমির হামজার ছেলে মো. মুছা অতর্কিতভাবে দা দিয়ে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে উপস্থিত লোকজন জামালকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে অবস্থার অবনতি হলে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। গত শনিবার আহত জানে আলম জামাল বাদি হয়ে মুছাকে একমাত্র আসামি করে সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে মুছা পলাতক ছিল। পুলিশও মুছাকে গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন জায়গায় অভিযান ও সোর্স লাগিয়ে তাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখে। অন্যদিকে, মুছা যাতে পুলিশের নিকট আত্মসমর্পণ করে সে নির্দেশ দেয়া হয় তার নিকট জনদের। ফলে গত রবিবার সকালে মুছা নিজে থানায় হাজির হয়ে পুলিশের নিকট ধরা দেয়।
সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সফিউল কবীর বলেন, আ. লীগ নেতা জানে আলম জামালকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় মামলার একমাত্র আসামিকে গতকাল রবিবার সকালে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

The Post Viewed By: 98 People

সম্পর্কিত পোস্ট