চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৬ আগস্ট, ২০১৯ | ১:৩৬ এএম

নিজস্ব সংবাদদাতা , বাঁশখালী

বাঁশখালীতে বাল্যবিয়ে ঠেকাল ইউএনও ও চেয়ারম্যান

বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে লটমনি পাহাড়ি এলাকায় আকদ হয়েও বাল্যবিয়ের ধুমধাম বন্ধ করে দিলেন বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার ও চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন চৌধুরী। গত শুক্রবার এ বাল্যবিয়ে সম্পন্ন হওয়ার কথা ছিল। গতকাল রবিবার সকালে বিয়ের কাজে নুরুল আজিমকে উপজেলা নির্বাহী পরিষদ কার্যালয়ে ডেকে এনে ভবিষ্যতেও যাতে বাল্যবিয়ে সে হুশিয়ারি দেয়া হয়। জানা যায়, সাধনপুর ইউনিয়নের ৫নং লটমনি পাহাড়ি এলাকায় দক্ষিণ টিলা নামক স্থানে মৃত আব্দু রশিদের মেয়ে ইয়াছমিন আক্তারের (১৪) সাথে কাথরিয়া ইউনিয়নের বাগমারা গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে আনোয়ার হোসেনের (১৮) সাথে গত শুক্রবার কাজীর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক বিবাহ হওয়ার কথা ছিল। এলাকায় বাল্য বিবাহ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার জানাজানি হলে চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন চৌধুরীর মাধ্যমে ইউপি মেম্বার আব্দু রহমান ও চৌকিদার দফাদারের মাধ্যমে এই বাল্যবিবাহ বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তারের কাছে অভিযোগ আসলে বাল্যবিবাহ বন্ধের জন্য অভিভাবকদের নির্দেশনা দেন, এবং বাঁশখালী উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে রবিবার বিয়ের কাজী নুরুল আজিমকে উপস্থিত হয়ে বাল্যবিয়ের বিষয়টি অবহিত করার নির্দেশ দেন। সাধনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মহিউদ্দীন চৌধুরী খোকা বলেন, প্রসাশনের সহযোগিতায় বাল্য বিবাহের খবর পেয়ে অভিবাবক ডেকে এনে এই বাল্য বিয়েটি বন্ধ করা হয়েছে। তবে আকদ্ হয়েছে শুনছি। মেয়ের ১৮ বছরের পূর্বে কোন অবস্থাতেই বিয়ে দেয়া সম্ভব হবে না। অভিভাবকদেরও বলে দেয়া হয়েছে। বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার বলেন, বাল্য বিবাহের খবর পেয়ে বিয়েটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বিয়ে রেজিস্ট্রি হয়নি বলে কাজী জানিয়েছে।

The Post Viewed By: 64 People

সম্পর্কিত পোস্ট