চট্টগ্রাম রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৫ আগস্ট, ২০১৯ | ৮:১১ পিএম

কক্সবাজার সংবাদদাতা

কক্সবাজারে ইলিশ আর ইলিশ

আরফাতুল মজিদ, কক্সবাজার

 

প্রায় ৬৫ দিন সাগরে মাছ ধরতে যেতে পারেনি জেলেরা। মৎস্য অবতরণ গুলো ছিল শূণ্য। জেলেরা ছিল বেকার। বাজারগুলোতে আকাল ছিল মাছের। কিন্তু এখন দৃশ্য পাল্টে গেছে। জেলে ও বোট মালিকদেরও ভাগ্য খুলেছে। রূপালি ইলিশের রমরমা কারবার চলছে কক্সবাজার ফিশারি ঘাটে। যার ছোঁয়া পড়েছে প্রতিটি বাজারে বাজারে। দামও ক্রেতাদের অনুকূলে। বড় সাইজের প্রতি কেজি ইলিশের দাম পড়ছে ৫শ টাকা থেকে ৬শ টাকার মধ্যে। রবিবার জেলেদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

কক্সবাজার শহরের নুনিয়াছড়া ফিশারীঘাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে দেখা যায়, ট্রলার মালিক, জেলেপল্লী, ভোক্তা সাধারণের মুখে হাসি ফুটেছে। এক মাস আগে সাগরে মৎস্য শিকার বন্ধ থাকার পর বর্তমানে কক্সবাজারের হাটবাজারে ইলিশে ভরে গেছে। কিছুদিন আগে বাজারে ইলিশসহ সামুদ্রিক মাছের আকাল চললেও এখন ইলিশ পেয়ে দারুণ খুশি স্থানীয়রা।

ফিশিং ট্রলারের মালিক সেলিম বহদ্দার বলেন, চার-পাঁচ দিন ধরে বঙ্গোপসাগর থেকে যেসব ট্রলার ঘাটে ভিড়ছে। দেখা গেছে, অন্যান্য সামুদ্রিক মাছের তুলনায় প্রায় বোটে ইলিশই বেশি। কারো ট্রলারে ২০ হাজার, কারো ২৫ হাজার এমনকি ৩০ থেকে ৩৫ হাজার ইলিশ। মাছ ব্যবসায়ী জয়লান আবেদীন বলেন, যেভাবে ইলিশ ধরা পড়ছে, দেশের চাহিদা মিটিয়ে বর্তমানে বিদেশেও ইলিশ রপ্তানি করা যাবে। আগের চেয়ে কম মূল্যে ইলিশ ক্রয় করে খুশি মনে ঘরে ফিরছেন ক্রেতারা। বর্তমানে কক্সবাজারের চাহিদা পূরণ করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় যাচ্ছে ইলিশ মাছ। স্তুুপে স্তুুপে ইলিশ সাজিয়ে রেখেছে ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় বাজারসহ হাটবাজারে ইলিশের মূল্য হাতের নাগালে এসেছে। একটু ছোট্ট সাইজের হলে কেজি মাত্র ২৮০ টাকা থেকে ৩৫০ টাকা ও বড় হলে ৫০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে ইলিশ।

সরেজমিন ফিশারি ঘাট মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে ঘুরে দেখা যায়, কেন্দ্রে চারদিকে শুধু ইলিশ আর ইলিশ। এ ছাড়াও শহরের বিভিন্ন হাটবাজারের সড়কের পাশে, পথচারী ও বিভিন্ন গাড়ির যাত্রীদের হাতে, জেলেদের নৌকা ও ঝাঁকাসহ যেদিকে চোখ যায় সর্বত্র শুধু ইলিশ আর ইলিশে সয়লাব। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাগর থেকে আসা প্রতিটি জেলে নৌকা ইলিশে পরিপূর্ণ। জেলেদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কখনো এত ইলিশ একসঙ্গে ধরা পড়েনি।

কক্সবাজার শহরে ইলিশ মাছের দাম সস্তা শুনে ঈদগাঁও থেকে আসা একে মটরস এর চেয়ারম্যার কপিল মাহামুদ জানান, এক সময় ফিশারি ঘাট থেকে কেজি প্রতি দুই হাজার টাকায় ইলিশ কিনেছি। কিন্তু রবিবার বড় সাইজের ইলিশ কিনেছি ৫৫০ টাকায়। বাসার জন্য অনেক ইলিশ কিনেছেন তিনি।

কক্সবাজার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক শরীফুল ইসলাম জানান, চার-পাঁচ দিন ধরে সাগরে অনেক ইলিশ ধরা পড়েছে। দামও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এতে ক্রেতাদের মধ্যে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে।

 

 

পূর্বকোণ/আরাফাত-রাশেদ

The Post Viewed By: 337 People

সম্পর্কিত পোস্ট