চট্টগ্রাম রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৫ আগস্ট, ২০১৯ | ২:১০ এএম

পটিয়ায় চেয়ারম্যান নাজেহাল মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেয়েছেন মেম্বার

পটিয়া উপজেলার ছনহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ দৌলতীকে নাজেহাল করার ঘটনায় পরিষদের সেই ৫নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. নাছির অবশেষে ক্ষমা চেয়ে পার পেয়েছেন। ইউপি সদস্য নাছিরকে পুলিশ আটকের পর বৃহস্পতিবার আটকের পর রাতে থানায় পুলিশ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে ক্ষমা চাওয়ার পর চেয়ারম্যান ক্ষমা করে দিয়েছেন। তিনশ টাকার একটি স্ট্যাম্পে উভয়ে স্বাক্ষর করে মুচলেকা দিয়েছেন বলে পুলিশ জানান।

জানা গেছে, উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ দৌলতীর সঙ্গে একই পরিষদের ৫নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. নাছিরের দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। ২০১৬ সালে ইউপি সদস্য নাছির মদ্যপান করে পরিষদে গিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তাকে পরিষদ থেকে বহিস্কার ও করা হয়। এর পর থেকে চেয়ারম্যানের সঙ্গে নাছিরের দূরত্ব বেড়ে যায়। গত ১৪ আগস্ট রাতে চেয়ারম্যানের উপর হামলা করে নাজেহাল করায় লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ নাছিরকে আটক করে হাজতে রাখে। অবশ্যই পরে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের অনুরোধে থানায় একটি বৈঠক হলে ইউপি সদস্য নাছির ক্ষমা চেয়ে পার পেয়ে যান।
ছনহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ দৌলতী জানিয়েছেন, ইউনিয়ন পরিষদে বিশৃঙ্খলার দায়ে ইউপি সদস্য নাছিরকে বহিস্কার করা হয়েছে। সে পুনরায় হামলা ও গাড়ি ভাংচুর করার চেষ্টা করায় থানায় একটি অভিযোগ করলে পুলিশ তাকে আটক করেন।

পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানিয়েছেন, ছনহরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের মধ্যে যে ভুল বুঝাবুঝি ছিল তা বৈঠকের মাধ্যমে সমাধান হয়েছে। পরবর্তীতে এই ধরনের কোন ঘটনা সৃষ্টি করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

The Post Viewed By: 137 People

সম্পর্কিত পোস্ট