চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

২৪ আগস্ট, ২০১৯ | ২:৪২ এএম

নিজস্ব সংবাদদাতা , রাঙ্গুনিয়া

রাঙ্গুনিয়ায় বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী

রাঙ্গুনিয়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মাসুদুর রহমানের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল নবম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী। রাঙ্গুনিয়া আদর্শ বহুমূখী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের এই ছাত্রীর গোপনে বাল্যবিয়ের আয়োজন করেছিল তার পরিবার। শুক্রবার তার বিয়ের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হয়েছিল। তবে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বিয়ের আগের রাতেই পন্ড হয়ে যায় বাল্যবিবাহটি।

এই ব্যাপারে স্কুলের শিক্ষক আবু সায়েম জানান, মেয়েটির বাড়ি রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার ৮নম্বর ওয়ার্ড সৈয়দবাড়ি এলাকায়। সে নবম শ্রেণীর ভোকেশনাল বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থী। তাঁর অমতে এবং পাত্রপক্ষের চাপের মুখে এই বিয়ের আয়োজন করেছিল তাঁর পরিবার। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) তাঁর বিয়ের নির্ধারিত দিন ছিল। এদিকে তাঁর বাল্যবিবাহের বিষয়ে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে বিয়েটি বন্ধের নির্দেশ দেন রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। পাশাপাশি রাঙ্গুনিয়া থানায় খবর দেন। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) রাত ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের শিক্ষক আবু সায়েম ও রহিম উদ্দিন সিকদার এবং রাঙ্গুনিয়া থানার উপপরিদর্শক মো. মাকসুদ সহ পুলিশ সদস্যরা মেয়েটির বাড়িতে যায়। তাঁরা যৌথভাবে দীর্ঘক্ষণ মেয়েটির বাবা-মাকে বাল্যবিবাহর কুফল ও খারাপ দিকগুলো বুঝান। এবং মেয়েটির পড়ালেখার ব্যাপারে যাবতীয় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। শেষ পর্যন্ত মেয়েটির পরিবার তাদের ভুল বুঝতে পেরে বিয়েটি বন্ধ করেন এবং প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বাল্যবিবাহ দেবে না মর্মে প্রতিশ্রুতি দেন।

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাসুদুর রহমান বলেন, অল্প বয়সে কারো বাল্যবিবাহ দেওয়ার সুযোগ নেই। এই ব্যাপারে খবর পেলেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রয়োজনে বাল্যবিবাহ’র সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কারাদন্ড ও অর্থদন্ড সহ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

The Post Viewed By: 36 People

সম্পর্কিত পোস্ট