চট্টগ্রাম শনিবার, ২৫ মার্চ, ২০২৩

সর্বশেষ:

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ৯:৪৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকল্প পরিচালককে মারধর : ১২ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করলো চসিক

কার্যালয় ভাঙচুর ও প্রকল্প পরিচালককে মারধরের ঘটনায় ১২ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)। মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলামের এক অফিস আদেশে এ তথ্য জানা যায়।

অফিস আদেশে বলা হয়, সরকারি প্রতিষ্ঠানে সংঘটিত এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কর্মকাণ্ডের জন্য পাবলিক প্রকিউরমেন্ট আইনের ধারা ৬৪ (৫), পাবলিক প্রকিউরমেন্ট বিধি ১২৭(১) ক ও ১২৭ (২) ঘ মতে এই প্রতিষ্ঠানগুলোকে কালো তালিকাভুক্ত করা হলো।

 

প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ঠিকাদার মুহাম্মদ সাহাব উদ্দিনের মালিকানাধীন মেসার্স মাহমুদা বিল্ডার্স ও মেসার্স এস জে ট্রেডাস, সঞ্জয় ভৌমিকের মেসার্স বাংলাদেশ ট্রেডার্স, মোহাম্মদ ফেরদৌসের মেসার্স মাসুদ এন্টারপ্রাইজ, সুভাষ মজুমদারের মেসার্স জয় ট্রেডার্স, মো. হাবিব উল্লা খানের মেসার্স খান করপোরেশন, মো নাজিম উদ্দীনের মেসার্স নাজিম অ্যান্ড ব্রাদার্স, মো. নাজমুল হোসেনের মেসার্স রাকিব এন্টারপ্রাইজ, মো. ইউসুফের মেসার্স ইফতেখার অ্যান্ড ব্রাদার্স, আশীষ কুমার দে এবং হ্যাপী দের যৌথ মালিকানাধীন মেসার্স জ্যোতি এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স দীপা এন্টারপ্রাইজ, আলমগীরের মেসার্স তানজিল এন্টারপ্রাইজ।

উল্লেখ্য, ২৯ জানুয়ারি বিকেলে চসিকের টাইগার পাস অস্থায়ী কার্যালয়ে গোলাম ইয়াজদানীর কক্ষে হামলা করেন অভিযুক্তরা। এসময় তাকেও মারধর করেন প্রভাবশালী এ ঠিকাদাররা। এ ঘটনায় রাতে নগরের খুলশী থানায় চসিকের নিরাপত্তা কর্মকর্তা মো. কামাল উদ্দিন বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। পরে পাঁচজন গ্রেপ্তার হয় এই মামলায়।

 

পূর্বকোণ/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট