চট্টগ্রাম শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

৩ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১২:১১ অপরাহ্ণ

সারোয়ার আহমদ

অর্থবছরের প্রথমার্ধে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৭ শতাংশ পিছিয়ে

চলতি অর্থবছরের (২০২২-২০২৩) প্রথমার্ধে রাজস্ব আয়ে নেতিবাচক ধারা থেকে বেরুতে পারেনি চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস। এমনকি এ অর্থবছরের শেষ পাঁচমাসে একবারও অর্জন করতে পারেনি রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা। এখন পর্যন্ত ধার্যকৃত লক্ষ্য থেকে চট্টগ্রাম কাস্টমস প্রায় সাড়ে ১৭ শতাংশ পিছিয়ে রয়েছে।  কাস্টমস সূত্র জানায়, গেল ছয়মাস (জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত) কাস্টমসের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৩৬ হাজার ৫৬০ কোটি টাকা। আদায় হয়েছে ৩০ হাজার ১৮০ কোটি ১৫ লাখ টাকা। অর্থাৎ, লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কাস্টমস ৬ হাজার ৩৭৯ কোটি ৮৫ লাখ টাকা কম আয় করেছে।  চট্টগ্রাম কাস্টমস কর্তৃপক্ষের লক্ষ্য ও অর্জনের পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, চলতি অর্থবছরের শুরুতে আলোর মুখ দেখেছিল চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস। এই অর্থবছরের জুলাই মাসে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪ হাজার ৪৮২ কোটি টাকা। এর বিপরীতে আদায় হয়েছে ৪ হাজার ৭৮১ কোটি ২১ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ৬ দশমিক ৬৮ শতাংশ বেশি হয়েছে। এ মাসে লক্ষ্যের তুলনায় ২৯৯ কোটি ২১ লাখ টাকা বেশি আদায় হয়েছিল। এরপর টানা পাঁচ মাস লক্ষ্যমাত্রা ছুঁতে ব্যর্থ হয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টমস। এ অর্থবছরের আগস্ট মাসে শুল্ক আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৫ হাজার ৬৬১ কোটি টাকা। বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৫ হাজার ৪৯৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ২ দশমিক ৮৭ শতাংশ কম হয়েছে।

 

সেপ্টেম্বর মাসে শুল্ক আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা। বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৫ হাজার ১০৫ কোটি ১৮ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ২৩ দশমিক ২৫ শতাংশ কম হয়েছে। অক্টোবর মাসে শুল্ক আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৫৫৭ কোটি টাকা। বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৪ হাজার ৯১৮ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ২৪ দশমিক ৯৯ শতাংশ কম হয়েছে।

 

নভেম্বর মাসে শুল্ক আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৬০৪ কোটি টাকা। বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৫ হাজার ৪৯৭ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ১৭ দশমিক ০৩ শতাংশ কম হয়েছে।

 

ডিসেম্বর মাসে শুল্ক আদায়ে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৬ হাজার ৬০৪ কোটি টাকা। বিপরীতে রাজস্ব আদায় হয়েছে ৪ হাজার ৩৯৭ কোটি ৭ লাখ টাকা। অর্থাৎ লক্ষ্যের তুলনায় অর্জন ৩৩ দশমিক ৪২ শতাংশ কম হয়েছে।

 

পরিসংখ্যান বলছে, আগস্ট থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৫ মাসের কোন মাসেই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি কাস্টমস। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের মতে, দেশে ডলারের চরম সংকটের কারণে পণ্য আমদানি করতে পারেনি ব্যবসায়ীরা। অন্যদিকে, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে বিশ্ব অর্থনীতিতে অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছিল। ফলে আমাদনি কমে গিয়েছিল এবং শুল্কও কম আদায় হয়েছিল।

 

উল্লেখ্য, চলতি অর্থবছরে চট্টগ্রাম কাস্টমের মোট রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা হলো ৭৪ হাজার ২০৬ কোটি টাকা। কিন্তু ৬ মাসে আদায় করা গেছে ৩০ হাজার ১৮০ কোটি ১৫ লাখ টাকা। অর্থাৎ আগামী ৬ মাসে চট্টগ্রাম কাস্টমসকে আরো ৪৪ হাজার ২৫ কোটি ৮৫ লাখ টাকা অর্জন করতে হবে।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট