চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২২ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:৫৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

অপেক্ষমাণ শিক্ষার্থীদের ভর্তি শুরু আজ

সরকারি বেসরকারি বিদ্যালয়ে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে অপেক্ষমাণ তালিকার শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে। আগামী ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষমান শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম চলবে। এর আগে সরকারি বেসরকারি বিদ্যালয়ে মেধা তালিকায় স্থান পাওয়া শিক্ষার্থীদের গত ১৮ থেকে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলে।

 

বিদ্যালয়ের নোটিশবোর্ড এবং ওয়েবসাইটে অপেক্ষমান শিক্ষার্থীদের তালিকা থাকবে। এছাড়া, ভর্তিতে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের তালিকাও সেখানে দেয়া থাকবে। অন্যদিকে, মহানগরীর বেসরকারি বিদ্যালয়ে সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি সর্বসাকুল্যে ৩ হাজার টাকার বেশি না নেয়ার জন্য ভর্তি নীতিমালায় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

 

তবে ভর্তি নীতিমালার নির্দেশনা উপেক্ষা করে নগরীর কিছু বেসরকারি বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায়ের অভিযোগ ওঠে। বেসরকারি স্কুল, স্কুল এন্ড কলেজে (মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক ও সংযুক্ত প্রাথমিক স্তর) শিক্ষার্থী ভর্তি নীতিমালা-২০২২ এ বলা হয়েছে, সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি সর্বসাকুল্যে মফস্বল এলাকায় ৫০০ টাকা, পৌর (উপজেলা) এলাকায় ১ হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় ২ হাজার টাকা এবং ঢাকা ব্যতীত অন্যান্য মেট্রোপলিটন এলাকায় ৩ হাজার টাকার বেশি হবে না।

 

নীতিমালায় আরো বলা হয়েছে, একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বার্ষিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে এক শ্রেণী থেকে অন্য শ্রেণীতে ভর্তির ক্ষেত্রে সেশন চার্জ নেয়া গেলেও পুনঃভর্তির ফি নেয়া যাবে না। গত ৮ ডিসেম্বর মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এসব কথা বলা হয়।

 

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ স্বাক্ষরিত সরকারি-বেসরকারি স্কুলগুলোর প্রধানদের পাঠানো একটি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ডিজিটাল লটারি অনুষ্ঠান পরবর্তী নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ফলের শিট অপেক্ষমাণ তালিকাসহ ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে। ফলের শিট অনুযায়ী ক্রমানুসারে আগামী ১৮ ডিসম্বর থেকে ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এবং অপেক্ষমান তালিকা থেকে ২২ ডিসেম্বর থেকে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম গ্রহণের তারিখ নির্ধারিত রয়েছে।

 

জানা যায়, চট্টগ্রাম মহানগরীর দশটি সরকারি বিদ্যালয়ের ৩ হাজার ৯১৮টি আসন রয়েছে। এসব আসনের বিপরীতে গত ৬ ডিসেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৩১টি আবেদন জমা পড়ে। সেই হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে আবেদন জমা পড়েছে ৫৯ দশমিক ৯৯টি। এই দশটি বিদ্যালয়ের মধ্যে পঞ্চম শ্রেণিতে ২ হাজার ৭৬, ষষ্ঠ শ্রেণিতে ৮০৩, ৭ম শ্রেণিতে ১৪৫, অষ্টম শ্রেণিতে ১৬৯ এবং নবম শ্রেণিতে ৭২৫টি শূন্য আসনে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। নগরীর এই ১০টি সরকারি বিদ্যালয়ে ৩ হাজার ৯১৮টি আসনে মেধা তালিকার পাশাপাশি সমপরিমাণ অপেক্ষামান তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে।

 

পূর্বকোণ/আর

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট