চট্টগ্রাম সোমবার, ৩০ জানুয়ারি, ২০২৩

১২ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:১৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বহুতল ভবনের নকশা, অপেক্ষা অনুমোদনের

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের নতুন বহুতল ভবনের নকশা প্রস্তুত হয়েছে। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাক্ষর পাওয়ায় অনুমোদনের জন্য তা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। নকশা অনুযায়ী বহুতল ভবনে ১৬৮টি শয্যা রাখা হয়েছে। এছাড়াও জরুরি বিভাগ, অপারেশন থিয়েটার, আউটডোর সেবাসহ গুরুত্বপূর্ণ বিভাগও রাখা হয়েছে নকশায়।

 

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত এ নকশা শুধুমাত্র মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পেলেই খুব দ্রুতই কার্যক্রম শুরু করা যাবে। আর জেনারেল হাসপাতালের নতুন ভবন তৈরি হলে চিকিৎসা সেবাদান কার্যক্রম আরও বেশি বেগবাম হবে মত চিকিৎসকদের। এর আগে ২০২০ সালের মে মাসে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় হাসপাতালে নতুন বহুতল ভবন নির্মাণের বিষয়টির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

 

শিক্ষা উপমন্ত্রী ও হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেই সভায় দশ তলা ভবন নির্মাণের বিষয়ে আলোচনা হয়। যদিও পরবর্তীতে পুঃআলোচনায় দশতলার স্থানে ২০ তলা ভবন করার বিষয়টি মত প্রকাশ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যা নিয়ে নির্মাণ প্রতিষ্ঠান গণপূর্ত বিভাগ কাজ শুরু করে। হাসপাতালের পাহাড়ের চূড়ায় বর্তমানে আইসোলেশন সেন্টারের পাশেই নতুন এ বহুতল ভবন নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়।

 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গণপূর্ত বিভাগ গেল বছরে প্রাথমিভাবে নকশা প্রণয়ন করে স্বাস্থ্য বিভাগে পাঠালেও তা পুঃসংস্কারের জন্য বলা হয়। সম্প্রতি দ্বিতীয়বারের মতো নকশা প্রণয়ন করে গণপূর্ত বিভাগ। যা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে উপস্থাপন করা হলে তাতে সাড়া পাওয়া যায়। নকশা পছন্দ হওয়ায় তাতে স্বাক্ষর করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, গণপূর্ত বিভাগ থেকে নকশা প্রণয়ন করে আমাদের কাছে নিয়ে আসে। তা যাচাই-বাছাইয়ের পর পছন্দ হওয়ায় চিঠিতে স্বাক্ষর করে গণর্পূত বিভাগকে প্রেরণ করা হয়েছে। আশা করছি খুব দ্রুতই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ চূড়ান্ত অনুমোদন দিবে।

 

নকশা অনুযায়ী নতুন ভবনে পৃথক পৃথক বিভাগ ভেদে মোট ১৬৮টি শয্যা রাখা হয়েছে। এছাড়া পর্যাপ্ত আইসিইউ ও জরুরি বিভাগের শয্যাও পৃথক পৃথক করে উপস্থাপন করা হয় নতুন এ ডিজাইনে। প্রতিটি ফ্লোরে ৯ হাজার ৬৭৮ স্কয়ার ফিটের জায়গায় চিকিৎসক কক্ষ ছাড়াও ২৮টি শয্যা রাখা হয়েছে। এরমধ্যে নিচতলায় জরুরি বিভাগ ও ক্যাজুয়ালিটি ওয়ার্ড রাখা হয়েছে। আর দ্বিতীয় তলায় রাখা হয় অপারেশন থিয়েটার (ওটি)। সার্জারিসহ অস্ত্রোপচারের কক্ষ।

 

গণপূর্ত অধিদপ্তর চট্টগ্রাম-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী রাহুল গুহ বলেন, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের নতুন ভবনের নকশা বা ডিজাইন প্রণয়নের পর তা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হয়। স্বাস্থ্য বিভাগ থেকেও ডিজাইন পছন্দ হওয়ার বিষয়টি আমাদের জানিয়েছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চিঠিতে স্বাক্ষর করে আমাদের পাঠানোর পর তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে ইতোপূর্বে প্রেরণ করা হয়েছে। এখন চূড়ান্ত অনুমোদন পেলেই যে কোন মুহূর্তে বাকি কার্যক্রম শুরু করা যাবে।

 

পূর্বকোণ/আর

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট