চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

১ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১২:২৬ অপরাহ্ণ

মিজানুর রহমান

চট্টগ্রামে এই প্রথম কোটি টাকা আয়কর আদায় ‘এ-চালানে’

প্রথমবারের মতো এ-চালান (অটোমেটেড চালান) পদ্ধতি ব্যবহার করে আয়কর দিয়েছেন চট্টগ্রামের ৪টি কর অঞ্চলের করদাতারা। আয়কর তথ্য ও সেবা মাস- নভেম্বর উপলক্ষে কর অঞ্চল-২ এর তত্ত্বাবধানে সেবা বুথ প্রাঙ্গণে স্থাপন করা ইউনিয়ন ব্যাংকের এ-চালান বুথ দিয়ে করদাতারা এ-চালান পদ্ধতিতে আয়কর পরিশোধের সুযোগ পান। এই পদ্ধতি ব্যবহার করে কেবল নভেম্বরেই নির্ঝঞ্ঝাটে প্রায় ১ কোটি টাকা আয়কর দেন চট্টগ্রামের ৪টি কর অঞ্চলের করদাতারা।

 

সংশ্লিষ্টরা জানান- গত ৬ নভেম্বর আয়কর তথ্য ও সেবা বুথে ইউনিয়ন ব্যাংকের একটি এ-চালান বুথ স্থাপন করা হয়। ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত এই বুথের মাধ্যমে ১ হাজার ১৯৮টি এ-চালানের বিপরীতে ৯৮ লাখ ৭৬ হাজার ৯২৬ টাকা আয়কর আদায় করা হয়। এরমধ্যে ৬ নভেম্বর ৩২টি এ-চালানের বিপরীতে ২ লাখ ১০ হাজার ৯৬৪ টাকা, ৭ নভেম্বর ৩৮টি এ-চালানের বিপরীতে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৬২৮ টাকা, ৮ নভেম্বর ১৩টি এ-চালানের বিপরীতে ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৩১ টাকা আয়কর আদায় করা হয়।

 

৯ নভেম্বর ১ লাখ ৬৪ হাজার ৭৭০ টাকা আয়কর আদায় করা হয় ৩৭টি এ-চালানের বিপরীতে। ১০ নভেম্বর ২৭টি এ-চালানের বিপরীতে ১ লাখ ৯০ হাজার ৮৪৬ টাকা, ১৩ নভেম্বর ৬৮টি এ-চালানের বিপরীতে ৭ লাখ ২৭ হাজার ৫৯৯ টাকা, ১৪ নভেম্বর ১০৬টি এ-চালানের বিপরীতে ১২ লাখ ৬৬ হাজার ৮৬০ টাকা, ১৫ নভেম্বর ৭৫টি এ-চালানের বিপরীতে ৪ লাখ ৯৬ হাজার ২৭ টাকা, ১৬ নভেম্বর ৪৪টি এ-চালানের বিপরীতে ৪ লাখ ১ হাজার ৭৫০ টাকা আয়কর আদায় করা হয়।

 

অন্যদিকে ১৬ নভেম্বর ৪৪টি এ-চালানের বিপরীতে ৪ লাখ ১ হাজার ৭৫০ টাকা আয়কর আদায় করা হয়। ১৭ নভেম্বর ৬৩টি এ-চালানের বিপরীতে ৪ লাখ ৬ হাজার ২৪৬ টাকা, ২০ নভেম্বর ৮১টি এ-চালানের বিপরীতে ৭ লাখ ৫৪ হাজার ৬২৩ টাকা, ২১ নভেম্বর ৮২টি এ-চালানের বিপরীতে ৬ লাখ ৬০ হাজার ১০৭ টাকা, ২২ নভেম্বর ৭৪টি এ-চালানের বিপরীতে ৬ লাখ ১ হাজার ৬৬৬ টাকা, ২৩ নভেম্বর ৭৮টি এ-চালানের বিপরীতে ৫ লাখ ৯৭ হাজার ৫৭২ টাকা আয়কর আদায় করা হয়।

 

এছাড়া ২৪ নভেম্বর ১১২টি এ-চালানের বিপরীতে ৭ লাখ ৬৬ হাজার ২৪১ টাকা, ২৭ নভেম্বর ১০৭টি এ-চালানের বিপরীতে ৮ লাখ ৬৯ হাজার ৬৪১ টাকা, ২৮ নভেম্বর ৭টি এ-চালানের বিপরীতে ১ লাখ ১৫৭ টাকা, ২৯ নভেম্বর ৭৪টি এ-চালানের বিপরীতে ৬ লাখ ৮৪ হাজার ১৬ টাকা এবং ৩০ নভেম্বর ৮০টি এ-চালানের বিপরীতে ৬ লাখ ৮১ হাজার ৪৮২টাকা আয়কর আদায় করা হয় এ-চালান পদ্ধতি ব্যবহার করে।

 

আয়কর কর্মকর্তারা বলছেন- পে অর্ডারের মাধ্যমে আয়কর জমা দিলে তা সরকারি কোষাগারে জমা হতে সময় লাগে। তবে এ-চালানের মাধ্যমে আয়কর পরিশোধ করলে মুহূর্তেই তা সরকারি কোষাগারে জমা হয়। এতে করদাতা এবং কর অঞ্চল কর্মকর্তাদের সময় বাঁচে। ঢাকায় আগেই এ-চালান দিয়ে আয়কর দেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করা হলেও চট্টগ্রামে এই সেবা এবারই প্রথম। এ-চালান পদ্ধতি চালুর মাধ্যমে ডিজিটাল আয়কর সেবায় আরেক ধাপ এগিয়ে গেল চট্টগ্রামের আয়কর বিভাগ।

 

জানতে চাইলে কর অঞ্চল-২ এর উপ-কমিশনার (প্রশাসন) রকিবুল হাফিজ পূর্বকোণকে জানান- করসেবা আরও জনবান্ধব এবং ডিজিটাল করার জন্য এ-চালান দিয়ে আয়কর আদায় এনবিআর চেয়ারম্যান স্যারের ড্রিম প্রজেক্ট। চট্টগ্রামে চেয়ারম্যান স্যারের এই ড্রিম প্রজেক্ট বাস্তবায়নে কর অঞ্চল-২ এর কমিশনার ম্যাম উদ্যোগ নিয়ছেন। এবারই প্রথম এ-চালান বুথ স্থাপন করা হয়েছে কর অঞ্চল-২ এর তত্ত্বাবধানে। এই বুথে চট্টগ্রামের ৪টি কর অঞ্চলের করদাতারা আয়কর দেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন।

 

কর অঞ্চল-২ এর কমিশনার সামিয়া আখতার পূর্বকোণকে বলেন, নির্ঝঞ্ঝাট করসেবা দিতে সরকার নানা উদ্যোগ নিয়েছে। মাঠ পর্যায়ে এসব উদ্যোগ বাস্তবায়নে আয়কর বিভাগকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিচ্ছেন এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম স্যার। স্যারের নির্দেশনায় চট্টগ্রামে আয়কর তথ্য ও সেবা মাস উপলক্ষে প্রথমবারের মতো সেবা বুথ প্রাঙ্গণে আমরা এ-চালান বুথ স্থাপনের উদ্যোগ নিই। এর মাধ্যমে ডিজিটাল আয়কর সেবায় আরেক ধাপ এগিয়ে গেল চট্টগ্রামের আয়কর বিভাগ।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট