চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

৩০ নভেম্বর, ২০২২ | ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

হাজার সুবিধাবঞ্চিতদের সাথে আহার সিএমপি কমিশনারের

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন ও চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হলো “একসাথে বাঁচার আনন্দ” নামক অনুষ্ঠান। বুধবার নগরীর অলঙ্কার কনভেনশন সেন্টারে এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন সিএমপি কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় । উক্ত আয়োজনের মাধ্যমে ৫ হাজার দরিদ্র পরিবারে খাদ্যসামগ্রী উপহার দেয়া হয় ও ১ হাজার সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে মেজবানি আহার করানো হয়। সিএমপি কমিশনার নিজে সুবিধাবঞ্চিত এতিম বাচ্চাদের সাথে এক টেবিলে বসে দুপুরের আহার করেন। 
এসময় সিএমপি কমিশনার বলেন “ এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে বিদ্যানন্দ আমাদের কে বার বার মনে করিয়ে দিচ্ছে সমাজে সবাইকে একসাথে নিয়ে কীভাবে বাঁচতে হয়। কীভাবে সুবিধাবঞ্চিতদের সম্মানজনকভাবে সহযোগিতা করতে হয়। সিএমপি সবসময় বিদ্যানন্দের এসব ভাল কাজে সহযোগিতা করে যাবে”

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন মনে করে এসব আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে সমাজের বিদ্যমান ধনী গরীবের বিবেদ কমে আসবে! ধনীরা তাদের দায়িত্ব সম্বন্ধে আরো সচেতন হবেন ও সুবিধাবঞ্চিতরা তাদের সামাজিক অবস্থান নিয়ে আর অনুশোচনা করবে না! সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের কেউ দাওয়াত করে না, তাদের সাথে এক টেবিলে খাবে সেতো আরো দুরের কথা! তাই অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজের কথা ভাষনেই থেকে যায়! সমাজের পিছিয়ে থাকা জনগোষ্ঠী সমাজ থেকে বিচ্ছিন্নই ররে যায়! তাই এসব সামাজিক পার্থক্য/ অসংগতি দূর করতে বিদ্যানন্দ সারাদেশে সামাজিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকে যেখানে অনুষ্ঠানের মধ্যমণি থাকেন সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠী ! এসব আয়োজন ছাড়াও বিদ্যানন্দ তাদের শুভাকাঙ্ক্ষীদের আহবান করে থাকে তারা যেন তাদের সামাজিক অনুষ্ঠানগুলোতে সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের সম্মানজনকভাবে অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়!
তারই ধারাবাহিকতায় আজ চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ ও বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজন করা হয়েছে এক হাজার সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য মেজবানি এবং সেই সাথে পাঁচ হাজার পরিবারের জন্য এক সপ্তাহের বাজার!

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের বোর্ড সদস্য জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ডিসি (হেড কোয়ার্টারস) সিএমপি মো. আব্দুল ওয়ারেশ, ডিসি (পশিম) সিএমপি  মো. জসীম উদ্দিন, ডিসি(ট্রাফিক পশ্চিম) সিএমপি  মো. তারেক আহমেদ, বিদ্যানন্দের বোর্ড সদস্য নাফিজ চৌধুরী ও সিএমপি ও বিদ্যানন্দের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

পূর্বকোণ/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট