চট্টগ্রাম বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ আগস্ট, ২০১৯ | ১:৫৪ এএম

নিজস্ব সংবাদদাতা , টেকনাফ

টেকনাফে আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার, আহত ৩ পুলিশ

‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

টেকনাফের হ্নীলায় পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশের ১ জন সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) এবং ২ জন সদস্য আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে ১টি এলজি (আগ্নেয়াস্ত্র), ৮ রাউন্ড শর্টগানের তাজা কার্তুজ, ৭ রাউন্ড কার্তুজের খোসা এবং ৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল (শুক্রবার) ভোররাত সোয়া ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ‘টেকনাফ মডেল থানাধীন হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদারপাড়ার বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের পুত্র বহু মামলার পলাতক আসামি মো. বাবুল হোসেন (২৬) কতিপয় মাদক ব্যবসায়ীসহ নিজ বাড়িতে অবস্থান করার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ মডেল থানা হতে অতিরিক্ত অফিসার ও ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করা হয়। ঘটনাস্থল ছিল টেকনাফ মডেল থানাধীন হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদারপাড়া সাকিনের পাহাড়ের উপর। অভিযানিক দল মো. বাবুলের বসতবাড়িতে পৌঁছলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মো. বাবুল হোসেনসহ তার অপরাপর সহযোগী অস্ত্রধারী ইয়াবা ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। এতে ঘটনাস্থলে এসআই মো. বাবুল, সিপাহি মো. আজিজ, সিপাহি রয়েল বডুয়া আহত হন। এ সময় পুলিশ ৩৮ রাউন্ড গুলি করে। পরে ঘটনাস্থলের আশপাশ এলাকায় ব্যাপক তল্লাশিকালে একব্যক্তিকে গুলিবিদ্ধ গুরুতর আহত অবস্থায় পাওয়া যায় এবং আসামিদের বিক্ষিপ্তভাবে ফেলে যাওয়া ১টি এলজি (আগ্নেয়াস্ত্র), ৮ রাউন্ড শর্টগানের তাজা কার্তুজ, ৭ রাউন্ড কার্তুজের খোসা এবং ৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়। ধৃত গুলিবিদ্ধ আহত ব্যক্তির নাম ঠিকানা জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার নাম মো. বাবুল হোসেন (২৬) (পিতার নাম আনোয়ার হোসেন) বলে জানায়। গুরুতর আহত মো. বাবুল হোসেন অপরাপর আসামিদের সহায়তায় দীর্ঘদিন হতে ইয়াবা ব্যবসা করে আসছে বলে স্বীকার করে। পরে গুরুতর আহত গুলিবিদ্ধ মো. বাবুল হোসেনকে (২৬) ভোররাতে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে আহত মো. বাবুল হোসেনকে কর্তব্যরত ডাক্তার গতকাল (শুক্রবার) সকাল ৬ টায় মৃত ঘোষণা করেন’।
উল্লেখ্য, থানার রেকর্ডপত্র সিডিএমএস পর্যালোচনা করে মৃত মো. বাবুল হোসেনের (২৬) বিরুদ্ধে সিএমপির কর্ণফুলী থানার এফআইআর নং-২৪, তারিখ- ২১ জুন, ২০১৮, ধারা- ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (১) এর ৯ (খ) এবং সিএমপির কোতয়ালী থানার এফআই আর নং-৮, তারিখ- ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১২, ধারা- ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (১) এর ৯ (খ) মূলে অভিযুক্ত আসামি মর্মে তথ্য পাওয়া যায়। ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা/মামলা রুজু করা হয়েছে।

The Post Viewed By: 271 People

সম্পর্কিত পোস্ট