চট্টগ্রাম সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

৫ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর

১৪ বছরেও গড়ে উঠেনি জনবসতি

বরাদ্দের ১৪ বছর পরও জনবসতি গড়ে উঠেনি নগরীর অনন্যা আবাসিক এলাকায়। ২০০৮ সালে অক্সিজেন এলাকার অনন্যা’য় আবাসিক, বাণিজ্যিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ মোট ১ হাজার ৭৩৩টি প্লট বরাদ্দ দেয় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ)। বরাদ্দের এক যুগের বেশি সময় পার হলেও একটি মাত্র বেসরকারি হাসপাতাল ছাড়া এখনো কোন স্থাপনা গড়ে উঠেনি সেখানে। আবাসিকে কোন স্থাপনা নির্মাণ না হওয়ার জন্য সিডিএকে দায়ী করছেন প্লট মালিকরা। অন্যদিকে, কেউ প্লট নিয়ে ভবন নির্মাণ না করলে এর জন্য প্লট মালিক নিজেই দায়ী বলছেন, সিডিএ চেয়ারম্যান।

 

অনন্যা আবাসিকের প্লট মালিকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, নগরীর অন্যান্য আবাসিক এলাকার তুলনায় অনন্যা আবাসিকে পাইলিং খরচ অনেক বেশি। সে কারণে কেউ সেখানে ভবন নির্মাণে আগ্রহী হচ্ছে না। এছাড়াও অনন্যায় সমস্যার শেষ নেই। পুরো আবাসিক এলাকাটি বর্তমানে ঘাস আর জঙ্গলময়। আবাসিক এলাকায় বিদ্যুতের খুঁটিগুলোর বয়সও প্রায় এক যুগ। প্লটের সাথে লাগোয়া রাস্তাগুলো ঠিক নেই। আবাসিকের চারপাশে নিরাপত্তা দেয়ালের ব্যবস্থাও করেনি সিডিএ।

 

প্লট মালিক মো. জাহেদুল ইসলাম বলেন, অনন্যা আবাসিকে স্থাপনা বা ভবন নির্মাণ না হওয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে নিরাপত্তার অভাব। অনেক প্লট মালিক আনুষাঙ্গিক কাজ (ওয়াল নির্মাণ, সয়েল টেস্ট) করতে গিয়ে চাঁদাবাজির কারণে নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে। নির্ধারিত লোক থেকে বালি, পাথর, লোহাসহ আনুষাঙ্গিক মালামাল না নিলে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে প্রভাবশালী।

 

তিনি আরো বলেন, প্লট বরাদ্দের ১৪ বছর পরও গড়ে উঠেনি ড্রেনেজ ব্যবস্থা। আলোকায়ন না থাকায় সন্ধ্যা হলেই সক্রিয় হয়ে উঠে অপরাধী ও মাদকসেবীরা। আবাসনের পরিবেশ গড়ে না উঠলেও বেশ কিছু প্লটের একাধিকবার পর্যন্ত মালিকানা হস্তান্তর হয়েছে। সিডিএ’র উচিত একটি আবাসিক এলাকায় যেসব সুযোগ-সুবিধা থাকা উচিত, সেসব সুযোগ-সুবিধা অনন্যা আবাসিকে দেয়া হলে সেখানে ভবন বা স্থাপনা নির্মাণ করবে প্লট মালিক।

 

জানতে চাইলে সিডিএ’র অথরাইজড অফিসার মো. হাসান বলেন, সম্প্রতি অনন্যা আবাসিক এলাকায় স্থাপনা নির্মাণের জন্য সিডিএতে প্ল্যানের জন্য অনেক প্লট মালিক আবেদন করেছেন। নিয়ম অনুসারে সেসব প্লটের অনুমোদন দেয়া হচ্ছে। তবে অনুমোদন দেয়া প্লটের কোনটিতে এখনো ভবন বা স্থাপনা নির্মাণ করেননি প্লট মালিকরা।

জানতে চাইলে সিডিএ চেয়ারম্যান এম জহিরুল আলম দোভাষ বলেন, ভবন বা স্থাপনা নির্মাণের জন্যই অনন্যা আবাসিকে প্লট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত প্লট মালিকরা ভবন নির্মাণ না করা দুঃখজনক। নিয়ম রয়েছে কেউ যদি প্ল্যান নিয়ে স্থাপনা নির্মাণের কাজ শুরু না করে সে ক্ষেত্রে তার প্ল্যান বাতিল হয়ে যাবে।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট