চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

১ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:৩০ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ছেলের মৃত্যুর ১০ ঘণ্টা পর মায়ের মৃত্যু

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে নুরুন্নবী (৩৮) নামে এক যুবক মারা যাওয়ার ১০ ঘণ্টা পর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন মা ছকিনা বেগম (৫৫)। ছেলের মৃত্যু শোক সহ্য করতে না পেরে বিলাপ করতে করতে মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম ওয়াহেদপুর গ্রামের আব্দুল গণি মুন্সি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। একইদিনে মা-ছেলের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তারা ওই বাড়ির মৃত আবুল খায়েরের পুত্র এবং স্ত্রী।

 

এদিকে নুরুন্নবীর ১৩ বছরের মেয়ে মোছাম্মৎ রোকসানা বাবা ও দাদীর মৃত্যুর পর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। বর্তমানে সে বাড়িতে চিকিৎসাধীন। নুরুন্নবীর খালা রেহানা আক্তার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্বজন নূরের ছাপা বলেন, নুরুন্নবী বছর দুয়েক আগে কিডনীজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন। সর্বশেষ গত ৪-৫ দিন আগে হাদি ফকিরহাট বাজারে একটি করাতকলে বাড়ির কিছু গাছ কাটার জন্য গেলে সেখানে তার পায়ের ব্যথা বেড়ে যায়। মঙ্গলবার ভোর ৫টায় বুকে ব্যথা উঠলে নুরুন্নবী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। ছেলের লাশের পাশে বসে কাঁদতে কাঁদতে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মা ছকিনা বেগমও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন। তিনি আরও বলেন, নুরুন্নবীরা ৩ ভাই। মেঝ ভাই মো. আনোয়ার চট্টগ্রামে মাছের ব্যবসা করেন। তৃতীয় জন নুর উদ্দিন ওমান প্রবাসী।

 

মঙ্গলবার যোহরের নামাজের পর নুরুন্নবীর জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। ছকিনা বেগমের ছোট ছেলে ওমান থেকে আসার পর বুধবার নামাজের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল কবির ফিরোজ বলেন, ছেলের মৃত্যুর পর মায়ের মৃত্যুর বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক। আমি ওই বাড়িতে গিয়ে স্বজনদের সঙ্গে দেখা করে আসবো। তাদের আমার ইউনিয়ন পরিষদ থেকে সহযোগিতা করা হবে।

 

পূর্বকোণ/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট