চট্টগ্রাম সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২৪ অক্টোবর, ২০২২ | ৭:১৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পোশাক শিল্পে উৎসে বকেয়া মূসক কর আদায় সাময়িক বন্ধের অনুরোধ

পোশাক শিল্প সংশ্লিষ্ট সেবা খাতে উৎসে বকেয়া মূসক কর আদায় কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন বিজিএমইএ নেতারা। এসময় মূসক আদায় কার্যক্রম সহজীকরণের আবেদন জানান তারা। 

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে নগরীর আগ্রাবাদে কাস্টম এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট’র সম্মেলন কক্ষে  বিজিএমইএ’র নেতাদের সঙ্গে কাস্টম এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনার সৈয়দ মুশফিকুর রহমানের এক মতবিনিময় সভায় এ অনুরোধ জানানো হয়।

 

মতবিনিময়কালে বিজিএমইএ’র নেতারা বলেন, বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রেক্ষিতে বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দায় মূদ্রাষ্ফীতির কারণে রপ্তানি বাণিজ্য অস্থিতিশীল হয়ে পড়েছে। জাতীয় অর্থনীতির বৃহত্তর স্বার্থে পোশাক শিল্পকে সার্বিক সহযোগিতার মাধ্যমে টিকিয়ে রাখতে হবে। পোশাক শিল্পের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম মূসকের আওতামুক্ত হলেও নগদে স্থানীয় ক্রয়ে উৎসে মূসক আদায়ে সি.এ. ফার্মের অডিট রিপোর্টসহ প্রায় এগার ধরনের বিভিন্ন দলিলাদি দাখিল করার জন্য নোটিশ প্রেরণ করা হচ্ছে।

বিগত ৫ বছরের বকেয়া মূসক আদায়ের লক্ষ্যে দাবিনামা জারি করা হচ্ছে। ফলে রপ্তানিকারকগণ বিভিন্ন জটিলতা ও প্রচুর হয়রানির সম্মুখিন হতে হচ্ছে। পোশাক শিল্পের বর্তমান সংকটকালীন মূহুর্তে উক্ত বিষয়ে কার্যক্রম সহজীকরণপূর্বক দারিনামা জারি না করে পর্যাপ্ত সময় প্রদান এবং বকেয়া মূসক আদায়ে কার্যক্রম সাময়িক স্থগিত রাখার জন্য তিনি ভ্যাট কমিশনারকে অনুরোধ করেন।

 

কাস্টম এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট চট্টগ্রাম সৈয়দ মুশফিকুর রহমান বলেন, জাতীয় অর্থনীতি ও কর্মসংস্থানে পোশাক শিল্পের অবদান বিবেচনায় সরকার শুল্ক, ভ্যাট মওকুফসহ বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করে আসছে। বর্তমান অর্থনৈতিক সংকটময় পরিস্থিতিতে পোশাক শিল্পকে সহায়তার লক্ষে উৎসে মূসক আদায় কার্যক্রম সহজীকরণসহ ৫ বছরের পরিবর্তে ২ বছরের বকেয়া মূসক আদায় এবং দাবিনামা জারির কার্যক্রম সাময়িকভাবে স্থগিত করা হবে মর্মে আশ্বাস প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি নিয়মিত ভ্যাট রিটার্ণ দাখিল ও প্রযোজ্য উৎসে মূসক প্রদানসহ উক্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ প্রদানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

 

বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে উক্ত মতবিনিময় সভায় বিজিএমইএর সিনিয়র সহ-সভাপতি এস.এম. মান্নান কচি, সহ-সভাপতি মো. শহীদুল্লাহ আজিম, সহ-সভাপতি (অর্থ)  খন্দকার রফিকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মো. নাসির উদ্দীন ও জনাব রাকিবুল আলম চৌধুরী, পরিচালক  মো. খসরু চৌধুরী, আবদুল্লাহ হিল রাকিব, হারুন-অর-রশিদ, রাজীব চৌধুরী, ব্যারিস্টার ভিদিয়া অমৃত খান, এ.এম. শফিউল করিম (খোকন), মো. হাসান (জ্যাকি), এম. এহসানুল হক, বিজিএমইএর প্রাক্তন পরিচালকবৃন্দ, পোশাক শিল্পের মালিকগণ এবং বিজিএমইএর মহাসচিব মো. ফয়জুর রহমানসহ বিজিএমইএর উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। কাস্টমস ভ্যাট এর পক্ষে অতিরিক্ত কমিশনার হাসান মুহাম্মদ তারেক রিকাবদার ও উপ-কমিশনারগন উপস্থিত ছিলেন।

 

পূর্বকোণ/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট