চট্টগ্রাম সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২২

সর্বশেষ:

২২ অক্টোবর, ২০২২ | ১০:৩০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

নাগরিক সেবা প্রদানে ‘ব্যর্থ’ চসিক ‘গলাকাটা’ গৃহকর আদায়ে তৎপর

সিটি কর্পোরেশন নাগরিক সেবা প্রদানে ব্যর্থ হলেও গলাকাটা গৃহকর আদায়ে তৎপর। করোনার ধাক্কা আর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে সাধারণ মানুষ টিকে থাকতে সংগ্রাম করছে। আয় না বাড়লেও ব্যয় বেড়ে চলছে। খাবার কিনতে নাভিশ্বাস উঠছে মানুষের। এই রকম পরিস্থিতিতে চসিক অযৌক্তিকভাবে গৃহকর বাড়ানোর চেষ্টা করছে। এটি বন্ধ করতে হবে।

 

গতকাল শুক্রবার নগরীর কদমতলীতে করদাতা সুরক্ষা পরিষদ আয়োজিত গণশুনানিতে অংশ নেওয়া বক্তারা এসব কথা বলেন। গণশুনানিতে অংশ নিয়ে গৃহকর আদায়কালে চসিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হয়রানির কথা তুলে ধরেন নগরীর বিভিন্ন এলাকার ১৫ জন করদাতা। তারা ঘুষ দিলে অযৌক্তিকভাবে নির্ধারণ করা গৃহকর কমিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন।

 

করদাতারা অভিযোগ করেন, পূর্বের তুলনায় তাদের গৃহকর ৫ থেকে ২০ গুণ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। গৃহকর কমিয়ে দেওয়ার নামে চসিকের রাজস্ব বিভাগের লোকজন তাদের কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করেছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে পূর্বের গৃহকর দিতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে। সেখানে নতুন করে নির্ধারণ করা গৃহকর তাদের পক্ষে দেওয়া সম্ভব নয়।

 

গণশুনানিতে অতিথির বক্তব্যে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) চট্টগ্রামের সম্পাদক আকতার কবির চৌধুরী করদাতা সুরক্ষা পরিষদের সভাপতি নুরুল আবছারের বিরুদ্ধে মেয়রের একান্ত সহকারীর করা মামলার সমালোচনা করেন। তিনি ভাড়ার ওপর ধার্য করা গৃহকর বাতিল করে আয়তনের ভিত্তিতে গৃহকর নির্ধারণ করতে মেয়রের প্রতি আহ্বান জানান।

 

করদাতা সুরক্ষা পরিষদের সভাপতি নুরুল আবছারের সভাপতিত্বে গণশুনানিতে বক্তব্য দেন মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্র ট্রাস্ট চট্টগ্রামের চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, পরিকল্পিত চট্টগ্রাম ফোরামের সহ-সভাপতি সুভাষ বড়ুয়া, আইনজীবী ভুলন ভৌমিক, চিকিৎসক সুশান্ত বড়ুয়া। সঞ্চালনা করেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুহম্মদ আমির উদ্দিন ও সাবেক কাউন্সিলর জান্নাতুল ফেরদৌস।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট