চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

১৮ অক্টোবর, ২০২২ | ১০:০৬ অপরাহ্ণ

আনোয়ারা সংবাদদাতা

বিএনপি নেতার ওপর হামলা: হেলালসহ আনোয়ারার পাঁচ নেতা বহিষ্কার

বিএনপি নেতার ওপর হামলার ঘটনায় আনোয়ারা উপজেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব লায়ন হেলাল উদ্দিনকে শেষ পর্যন্ত বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। একই অপরাধে লায়ন হেলাল উদ্দিনের অনুসারী আরও চার নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) বিকেলে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপুর সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

 

বহিষ্কৃত লায়ন হেলাল উদ্দিনের অনুসারীরা হলেন, আনোয়ারা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব গাজী মো. ফোরকান, আনোয়ারা উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি জিয়াউল কাদের জিয়া, ছাত্রদল নেতা ইসমাইল বিন মনির ও মো. হাসান।

গত ১৫ অক্টোবর চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রতিনিধি সভা শেষে বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবির চৌধুরী আনছার ও দক্ষিণ জেলা যুবদলের সহসভাপতি রফিকুল ইসলাম খোকার ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে।

 

হামলাকারীরা চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য ও আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব লায়ন হেলাল উদ্দিনের অনুসারী। সোমবার হামলার সাথে জড়িতদের বহিষ্কারের দাবিতে আনোয়ারায় ঝাড়ু মিছিল করে যুবদল।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব ‘কালা হেলাল’কে দায়ী করেছেন। হেলাল উদ্দিন ২০০৪ সালে চট্টগ্রামের আলোচিত বিএনপি নেতা ও ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিন অপহরণ ও হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। আদালতে দেয়া ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে হেলাল ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিন অপহরণের ও হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছিলেন।

 

এই হেলাল উদ্দিনকে উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব করার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও মহাসচিব বরাবর অভিযোগ দিয়েছিলেন আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়করা।

লায়ন হেলাল জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতা ব্যারিস্টার মীর হেলালের অনুসারী। ইতিপূর্বে দলের কোন পদ-পদবীতে না থাকলেও মীর হেলালের সুপারিশে তাকে আনোয়ারা উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব করেন দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান ও সদস্য সচিব মোস্তাক আহমেদ।

 

পূর্বকোণ/সুমন/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট