চট্টগ্রাম রবিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২

৬ অক্টোবর, ২০২২ | ১০:১৮ অপরাহ্ণ

বাঁশখালী সংবাদদাতা

বাঁশখালী ভূমি অফিস থেকে দালাল আটক, মুচলেকায় মুক্তি

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা ভূমি অফিস থেকে মো. ফোরকান (৩৩) নামে এক দালালকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালতে ভূমি অফিসে সেবা নিতে আসা মো. ফখরুদ্দিন নামে এক কাপড় ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৬৫ হাজার টাকা নেয়ার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

দোষ স্বীকার করায় তার কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা উদ্ধার করে ভুক্তভোগীর কাছে ফেরত দেওয়া হয় এবং মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১২ টায় উপজেলা ভূমি অফিসের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়। এক ঘণ্টা আটকের পর মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসান।

জানা গেছে, সরল ইউপির জালিয়াঘাটা ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত আবুল কাশেমের ছেলে মো. ফোরকান একজন দালাল হিসেবে চিহ্নিত। তিনি ৭-৮ মাস ধরে ভূমি অফিসে বিভিন্ন মানুষের নামজারি ও কোর্টের মামলা নিয়ে দালালি করেন। এজন্য তিনি ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেন।

ভূমি অফিসে নামজারী খতিয়ান সেবা নিতে আসা সরল ইউপির কাহারঘোনা এলাকার মো. ফখরুদ্দিন বলেন, নামজারী খতিয়ান করে দেওয়ার কথা বলে ৭-৮ মাস পূর্বে আমার কাছ থেকে দফায় দফায় ৩৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় দালাল ফোরকান। তাকে দীর্ঘদিন ধরে খোঁজার পর বৃহস্পতিবার সরাসরি ভূমি অফিসের সামনে থেকে আটক করে এসি ল্যান্ডে স্যারের কাছে নিয়ে যাই।

বাঁশখালী সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোন্দকার মাহমুদুল হাসান বলেন, ফোরকান বিভিন্ন ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে ভূমি অফিসের কর্মচারী পরিচয় দিয়ে নামজারী করাতে আসেন। নামজারী করে দেয়ার নামে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অনেক অভিযোগ আমার হাতে আসে। এমনকি সে পূর্বে ও সহকারী কমিশনার ভূমির স্বাক্ষর জাল করাসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ড করেছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে কয়েকগুণ বেশি টাকা নিয়ে নামজারী করার কাজ করছিলেন। সে বড় মাপের একজন টাউট ও প্রতারক। পরে জিজ্ঞাসাবাদে সব দোষ স্বীকার করে।

পূর্বকোণ/অনুপম/মামুন/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট