চট্টগ্রাম রবিবার, ২৯ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ | ১০:২৭ পূর্বাহ্ণ

ইমরান বিন ছবুর

প্রথমবারের মতো অনলাইনে বদলির আবেদন শুরু

দীর্ঘ দুই বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর অবশেষে প্রাথমিক শিক্ষক বদলির আবেদন শুরু হয়েছে। গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে অনলাইনে বদলির আবেদন শুরু হয়। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষকরা বদলির আবেদন করতে পারবেন। আবেদন সময় শেষ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে ফলাফল প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলে জানা যায়। এবার প্রথমবারের মত প্রাথমিক শিক্ষকদের অনলাইনে বদলির আবেদন শুরু হয়। এর আগে ম্যানুয়ালি বদলির আবেদন গ্রহণ হতো।

নগরী ও উপজেলার প্রাথমিকের একাধিক শিক্ষকের সাথে কথা বলে জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবৎ বদলি বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন প্রাথমিকের শিক্ষকরা। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের বিভিন্ন গ্রুপে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কোন কোন শিক্ষক। দুই বছরের বেশি সময় বদলি বন্ধ থাকায় কর্মস্থল নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েন অসংখ্য শিক্ষক। দীর্ঘদিন বদলি বন্ধ থাকায় সারা দেশের শিক্ষকদের মাঝে এক ধরনের অস্থিরতা ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি ভুক্তভোগী নারী শিক্ষকরা। তবে এ নিয়ে প্রকাশ্যে মন্তব্য করতে চান না শিক্ষকরা।

অন্যদিকে, শিক্ষকদের একাংশ মনে করছেন, প্রতি বছর শিক্ষকদের বদলি নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠে। এসব অনিয়ম ও দুর্নীতি রোধে অনলাইন বদলি শুরু করা হয়েছে।

তবে বদলির এসব অভিযোগের বিষয়ে কিছু বলতে চান না চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম। তিনি পূর্বকোণকে বলেন, কি কি কারণে অনলাইনে বদলি শুরু হয়েছে তা আমরা বলতে পারছি না। এটা অধিদপ্তর দেখছে। প্রাথমিকভাবে ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে প্রাথমিকের শিক্ষকদের অনলাইনে বদলির আবেদন শুরু হয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। এরমধ্যে আবেদন করতে হবে।

প্রাথমিক শিক্ষক বদলি নীতিমালা ২০২২ সংক্রান্ত সমন্বিত অনলাইন বদলি নির্দেশিকা প্রকাশ করেছে প্রাথমিক গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। ১১ সেপ্টেম্বর এ বদলি নির্দেশনা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে। সেখান থেকে জানা যাবে বদলিতে যাবতীয় করণীয়।

চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে বদলি কার্যক্রম সাধারণত শুরু হয় জানুয়ারি মাসে। কার্যক্রম পুরো মার্চ মাস পর্যন্ত চলে। তবে গত দুই বছরের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বদলি। প্রথম দফায় গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার পর প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর অনলাইনে শিক্ষক বদলি শুরু করার উদ্যোগ নেয়।

সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) এ জেড এম নূরুল হক স্বাক্ষরিত এক সমন্বিত অনলাইন বদলি নির্দেশিকায় বলা হয়েছে- সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০ কার্যক্রম চলমান থাকায় বর্তমানে কর্মরত শিক্ষকদের সুবিধার্থে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখ হতে সারা দেশে একই উপজেলা/থানার মধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও প্রধান শিক্ষকগণের অনলাইন বদলির কার্যক্রম শুরু হবে। প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকগণ ওয়েব সাইটে প্রদত্ত সফটওয়্যারের লিংকের মাধ্যমে আবেদন করবেন। সমন্বিত অনলাইন বদলি নির্দেশিকা ২০২২ এর সফটওয়্যার যথাসময়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট