চট্টগ্রাম সোমবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২১

সর্বশেষ:

৪ মে, ২০১৯ | ৩:০২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা , আনোয়ারা

আনোয়ারায় খোলা বেড়িবাঁধ লোকালয়ে পানি, আতংক

প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র আঘাতে আনোয়ারার উপকূলীয় এলাকায় বঙ্গোপসাগরের জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। খোলা বেড়িবাঁধ দিয়ে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করছে।
লোকজন আতংকিত হয়ে উঠছে। গতকাল (শুক্রবার) সন্ধ্যা নাগাদ উপকূলীয় এলাকায় বাতাসের ধমকা হাওয়া চলছিল। ধমকা হাওয়া বয়ে যাচ্ছিল এলাকাজুড়ে। উপজেলা প্রশাসন ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবেলায় বিভাগীয় কর্মকর্তাদের সাথে প্রস্তুতি বৈঠক করেছে। শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানি মজুদ রাখাসহ সিপিবির সাড়ে ৭’শ স্বেচ্ছাসেবক এলাকায় কাজ করছে। মাইকিং চলছিল। পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। ৬নং বিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে। গতকাল (শুক্রবার) এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে কোন লোক আশ্রয় নেয়নি। খাওয়া ধাওয়া শেষে লোকজন হতো আশ্রয় কেন্দ্রে আসতে পারে। স্থানীয় রায়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জানে আলম জানান, দুপুর নাগাদ জোয়ারের পানি ২ ফুট বৃদ্ধি পেয়েছিল। গহিরা বার আউলিয়া এলাকায় খোলা বেড়িবাঁধ দিয়ে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করেছে।
তবে এলাকায় বড় ধরণের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি অফিসের সহকারী পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে সাইক্লোন শেল্টারগুলোতে ২ হাজার ২ শ’র মতো লোক আশ্রয় নেয়। পরদিন শুক্রবার সকালে তারা আবার বাড়িতে চলে যায়। এখনো লোকজন আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়নি। তিনি জানান, এলাকায় প্রবল ধমকা হওয়ায় মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। প্রশাসনের সার্বিক প্রস্তুতি চলছে। সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 309 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট