চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২৪ আগস্ট, ২০২২ | ১:০৫ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার সংবাদদাতা

কক্সবাজারে স্কুলশিক্ষককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩

কক্সবাজার সদরের বাংলাবাজার এলাকায় এক স্কুল শিক্ষিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় প্রধান আসামী বেদার মিয়াসহ (২৮) তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১৫। মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) রাতে কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আটকরা হলেন- সদরের পিএমখালী ছনখোলা ইফনুছঘোনা এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে বেদার মিয়া (২৮), পিএমখালী উত্তর তারানিয়াপাড়া সিকদারবাড়ি এলাকার দিল মোহাম্মদের ছেলে মোস্তাক মিয়া (২৪) ও খরুলিয়া এলাকার মৃত রশিদ আহমেদের ছেলে মো. বেলাল উদ্দিন (২২)। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত আসামীরা সকলেই গণধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

বুধবার (২৪ আগস্ট) দুপুর ১২ টায় এক মেইল বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (আইন এবং গণমাধ্যম) মো. বিল্লাল উদ্দিন।

র‌্যাব জানান, গত ১৮ আগস্ট রাতে পিএমখালীতে অবস্থিত একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে ভিকটিমের সাথে মামলার প্রধান অভিযুক্ত বেদার মিয়ার পরিচয় হয়। পরবর্তীতে বেদার মিয়া আরো তিন সহযোগীসহ ভিকটিমকে অস্ত্রের মুখে ভয় দেখিয়ে কক্সবাজার সদর থানাধীন ঝিলংজা ইউপিস্থ চাঁন্দেরপাড়া এলাকার একটি নির্মানাধীন ভবনের নিচ তলার কক্ষে নিয়ে ভিকটিমের অসহায়ত্ব ও সরলতার সুযোগ নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ২২ আগস্ট রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি গণধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় সদর উপজেলার পিএমখালী ইউনিয়নের ছনখোলা ইউনুছঘোনা এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে বেদার মিয়া (২৮) নামে একজনসহ অজ্ঞাত আরও তিনজনকে আসামি করা হয়।

মো. বিল্লাল উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় র‌্যাব ছায়াতদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। একপর্যায়ে মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) রাতে তাদের কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকা থেকে বেদার মিয়াসহ তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট