চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

২৩ আগস্ট, ২০২২ | ১২:৪৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা

সৈয়দ মুজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর খোশরোজ শরীফে ভক্তের ঢল

হাজার হাজার আশেকানে মমাওলানা সৈয়দ মুজিবুল বশর আল-হাছানী, আল-মাইজভাণ্ডারীর (মা.জি.আ) পবিত্র খোশরোজ শরীফ মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফে সম্পন্ন হয়েছে।

গতকাল সোমবার সকালে হযরত বাবা ভাণ্ডারী কেবলা কাবা ও হযরত গাউছে জামান সৈয়দ শফিউল বশর মাইজভাণ্ডারী কেবলা কাবার রওজা শরীফে গোসল শেষে গিলাপ চড়ানো এবং পুস্পমাল্য দিয়ে রওজা শরীফ সাজানোর মাধ্যমে খোশরোজ শরীফের কর্মসূচি শুরু হয়। খোশরোজ উপলক্ষে গৃহীত অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে আছরের নামাজ শেষে ছিল মাইজভাণ্ডার শাহী ময়দানে আখেরী মোনাজাত।

আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন সৈয়দ মুজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী(ম.জি.আ.)। আখেরি মোনাজাতে শাহজাদা সৈয়দ নুরুল বশর মাইজভাণ্ডারী, আশেকানে মাইজভাণ্ডারীর পরিষদের নেতৃবৃন্দসহ আগত হাজার হাজার আশেকানে মাইজভাণ্ডারী শরীক হন। এসময় দেশ জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। শেষে রাতে চেমা মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে, খোশরোজ শরীফ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে অসংখ্য যানবাহনে করে আশেকানে মাইজভাণ্ডারীর আগমনে দরবার শরীফ এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে গেছে। আখেরী মোনাজাত শেষে আগত আশেকানরা নিজ নিজ গন্তব্যের দিকে রওয়ানা দিতে দেখা গেছে।

খোশরোজ শরীফে সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও যানজট নিয়ন্ত্রণে বিপুল সংখ্যক পুলিশ, ট্রাফিক পুলিশ, মহিলা পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবক মোতায়েন করা হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা নাগাদ সমগ্র মাইজভাণ্ডার এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে গেছে।

হযরত সৈয়দ মুজিবুল বশর আল হাছানী আল মাইজভাণ্ডারী খোশরোজ শরীফ সুন্দরভাবে পালনে সার্বিক সহযোগিতার জন্য ফটিকছড়ি উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ, বিদ্যুৎ বিভাগসহ সকল ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি দরবারের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট