চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

৫ জুলাই, ২০২২ | ৫:১৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা: চসিক কাউন্সিলরের ছেলের ২ দিনের রিমান্ড

চসিক কাউন্সিলরের পুত্রবধূর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় তার ছেলে নওশাদুল আমিনের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সরোয়ার জাহানের আদালত।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন পাহাড়তলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুস্তাফিজুর রহমান। পূর্বকোণকে তিনি বলেন, ‘আমরা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আসামির তিন দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলাম। আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।’

এর আগে গত শনিবার (২ জুলাই) সকালে পাহাড়তলীর বাসা থেকে রেহনুমা ফেরদৌসের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি ১২ নম্বর সরাইপাড়া ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল আমিনের ছেলে নওশাদুল আমিনের স্ত্রী। এ ছাড়া চসিকের আরেক প্রয়াত কাউন্সিলর ও নগর আওয়ামী লীগের সাবেক নেতা তারেক সোলায়মান সেলিমের ভাই তারেক ইমতিয়াজের মেয়ে।

ওই দিন রাতেই মৃতের বাবা বাদী হয়ে নওশাদুল আমিন ও তাঁর মাকে আসামি করে পাহাড়তলী থানায় একটি আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা করেন। ওই মামলায় পরে নওশাদুলকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। ঘটনার পর থেকে পলাতক আছেন কাউন্সিলরের স্ত্রী ও নওশাদুলের মা পলি বেগম। মৃতের পরিবার শুরু থেকে দাবি করছেন, শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময়ে যৌতুকের দাবিতে রেহনুমাকে নির্যাতন করতেন।

রেহনুমার দুই বছরের একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। ২০১৭ সালের ২২ ডিসেম্বর কাউন্সিলরপুত্র নওশাদুল আমিনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়েছিল।

পূর্বকোণ/মামুন/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট