চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

৫ জুলাই, ২০২২ | ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

নাজিম মুহাম্মদ

এক লাফে চারগুণ বেড়েছে কাভার্ডভ্যানের ভাড়া

তৈরি পোশাক পরিবহনের প্রধান বাহন কাভার্ডভ্যান। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের ডিপোগুলোতে গার্মেন্টস পণ্য পরিবহনে একটি কাভার্ডভ্যানের ভাড়া নেওয়া হতো ১২ থেকে ১৫ হাজার। গত ১৫ দিন ধরে প্রতি কাভার্ডভ্যানের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ হাজার টাকা। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন গার্মেন্টস থেকে ডিপোগুলোতে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে ৪ হাজার টাকার স্থলে ১৭ থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত ভাড়া নেয়া হচ্ছে। যা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে চারগুণ বেশি।
কাভার্ডভ্যান মালিক এসোসিয়েশন জানিয়েছে, বেসরকারি ডিপোগুলোতে ১৫ থেকে ২০ দিন ধরে পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যান আটকে আছে। এতে সংকট দেখা দেয়ায় গাড়ি ভাড়া বেড়ে গেছে। এদিকে, বেসরকারি ডিপোগুলোতে পণ্যবাহী কাভার্ডভ্যান দীর্ঘ সময় আটকে থাকার বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, নগর পুলিশ কমিশনার, চট্টগ্রাম চেম্বার ও বাংলাদেশ ইনল্যান্ড কন্টেইনার ডিপোস এসোসিয়েশনের (বিকডা) কাছে গত রবিবার চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)।
ডিপোগুলোতে ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যানের দীর্ঘ অপেক্ষা প্রসঙ্গে ডিপো মালিকদের সংগঠন বিকডা’র সচিব রুহুল আমিন সিকদার দৈনিক পূর্বকোণকে বলেন, ‘বড় যেসব কনটেইনার ডিপো রয়েছে সেগুলোতে সম্প্রতি উল্লেখযোগ্য হারে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানের চাপ বেড়ে গেছে। এটি দুটি কারণে হয়েছে। প্রথমত, বিএম কনটেইনার ডিপো বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে ওই ডিপোর আমদানি-রপ্তানি পণ্যগুলো যাচ্ছে বড় বড় ডিপোগুলোতে। দ্বিতীয়ত, ঈদুল আজহা’র ছুটির কারণে ঈদের পর গার্মেন্টস ও শিল্প কারখানাগুলো কমপক্ষে এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিন পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে। তাই কারখানাগুলো ঈদের ছুটির আগেই তাদের রপ্তানি পণ্য ডিপোতে পাঠিয়ে দিচ্ছে। তাই স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় ডিপোগুলোতে অতিরিক্ত পণ্যের চাপ পড়েছে। এ কারণে ট্রাক/কাভার্ডভ্যানগুলোকে ডিপোতে গিয়ে দীর্ঘ সময় অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে।
বাংলাদেশ কাভার্ডভ্যান ট্রাক প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক এসোসিয়েশনের মহাসচিব চৌধুরী জাফর আহমেদ বলেন, ‘চট্টগ্রাম বন্দরের পণ্য আনা নেয়ার কাজে প্রতিদিন অন্তত ২০ হাজার কাভার্ডভ্যান আসা-যাওয়া করে। হঠাৎ করে ডিপোগুলোতে পণ্য আনলোড ধীরগতি হয়ে গেছে। ঢাকা থেকে গার্মেন্টস পণ্য নিয়ে আসা অন্তত পাঁচ হাজারের বেশি কাভার্ডভ্যান বিভিন্ন ডিপোতে আটকে আছে। প্রায় ১৫ থেকে ২০ দিন ধরে গাড়িগুলো আটকে থাকার কারণে কাভার্ডভ্যান সংকট দেখা দিয়েছে।’
জাফর আহমেদ বলেন, ‘ঈদের আগে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম বন্দরমুখী গার্মেন্টস পণ্য সরবরাহের চাপ বেড়ে গেছে। এতে চট্টগ্রামমুখী কাভার্ডভ্যানের ভাড়া বেড়ে গেছে। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পণ্য আনতে আগে একটি কাভার্ডভ্যান ভাড়া নেওয়া হতো ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা। বর্তমানে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা ভাড়া নিচ্ছে। গত ১০-১৫ দিন ধরে এ অবস্থা চলছে।’
এছাড়া কন্টেইনার ডিপোগুলোতে গাড়ি আটকে থাকলে আগে দিনে এক থেকে দেড় হাজার টাকা ডেমারেজ দিতে হতো পণ্যের মালিককে। এখন দিনে ছয় থেকে সাত হাজার টাকা ডেমারেজ দিতে হচ্ছে। এ অবস্থা ঈদের পরে আরো ১০ থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত থাকবে এমনটি ধারণা করেন পরিবহন নেতা জাফর আহমেদ।
বিজিএমইএ’র চিঠি : বাড়তি ভাড়া প্রসঙ্গে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার, বাংলাদেশ ইনল্যান্ড কন্টেইনার ডিপোস এসোসিয়েশন (বিকডা) ও চিটাগাং চেম্বারে কাছে গত রবিবার চিঠি দিয়েছে বিজিএমইএ।
বিজিএমইএ’র সহ সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম ও সহ সভাপতি রকিবুল আলম বলেন, ঈদ মৌসুমে পোশাক শিল্পের রপ্তানি চালান জাহাজীকরণের সিডিউল বেশি থাকে। আসন্ন ঈদুল আযহা’র প্রাক্কালেও প্রাইভেট আইসিডিতে পোশাক শিল্পের রপ্তানি চালান হ্যান্ডলিংয়ের প্রচুর চাপ রয়েছে। কিন্তু প্রাইভেট আইসিডিগুলোতে বিভিন্ন অবকাঠামোগত সীমাবদ্ধতাসহ পণ্য চালান খালাস ও বোঝাইতে শ্রমিক স্বল্পতার কারণে অতিরিক্ত সময়ক্ষেপণে পণ্যবাহী অনেক কাভার্ডভ্যান/ট্রাককে ৭ থেকে ৮ দিন অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। এ সুযোগে কাভার্ডভ্যান/ট্রাক মালিক অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে, যা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকগুণ বেশি এবং অসহনীয়। এতে রপ্তানিকারকরা প্রচুর আর্থিক ক্ষতির শিকার হচ্ছে। যথাসময়ে পণ্য চালান জাহাজীকরণে বিলম্বের কারণে রপ্তানি আদেশ বাতিল হচ্ছে। এয়ার শিপমেন্টের সম্মুখীন হতে হচ্ছে।
চিঠিতে বলা হয়, দেশের রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ যোগানদানকারী এ খাতের অর্ডার বাতিল হলে কিংবা জাহাজীকরণ সম্ভব না হলে বৈদেশিক মুদ্রা প্রত্যাবাসন বন্ধ হয়ে যাবে। জাতীয় অর্থনীতিতে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে। এতে আসন্ন ঈদের আগে শ্রমিকদের যথাসময়ে বেতনভাতা পরিশোধে বিলম্বের কারণে শ্রমিক অসন্তোষসহ গার্মেন্টস শিল্পে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ও বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট