চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

৩ জুলাই, ২০২২ | ৩:২৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘মিয়ানমার থেকে মাসে ১২০ কোটি টাকার ইয়াবা আনেন রোহিঙ্গা শফিউল্লাহ’

কক্সবাজারের উখিয়ায় মাদক চালানের সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে শফিউল্লাহ (৩৮) নামে এক রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশের দাবি, মিয়ানমার থেকে মাসে ১২০ কোটি টাকার ইয়াবা আনেন শফিউল্লাহ। তিনি উপজেলার লম্বাশিয়া আশ্রয়শিবিরের আবদুস সালামের ছেলে।

শনিবার (২ জুলাই) রাত ১০টায় উখিয়ার লম্বাশিয়া (ক্যাম্প-১ ডব্লিউ) আশ্রয়শিবিরে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে উখিয়ার পাতাবাড়ি পাহাড়ি এলাকা থেকে ৬০ লাখ টাকা মূল্যের ২০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে পুলিশ।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, শফিউল্লাহকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ গভীর রাতে উখিয়ার পাতাবাড়ি পাহাড়ি এলাকা থেকে ৬০ লাখ টাকা মূল্যের ২০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে। পরে শফিউল্লাহ পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন, তিনি নিজেই প্রতি মাসে ৯০ থেকে ১২০ কোটি টাকার দামের ৩০ থেকে ৪০ লাখ ইয়াবা মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে উখিয়ার আশ্রয়শিবিরে নিয়ে আসেন। পরে আশ্রয়শিবির থেকে এসব ইয়াবা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ইয়াবা পাচারের সঙ্গে জড়িত আশ্রয়শিবিরের কিছু প্রভাবশালী রোহিঙ্গা ছাড়াও উখিয়া এবং মিয়ানমারের একাধিক সিন্ডিকেট সদস্যের নাম প্রকাশ করেছেন শফিউল্লাহ। আশ্রয়শিবিরে ইয়াবার চালান নিয়ে আসার জন্য আরও বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী রোহিঙ্গা জড়িত আছেন, যাঁদের সঙ্গে মিয়ানমারের সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান স্যালভেশন আর্মি (আরসা) ও উখিয়ার প্রভাবশালীদের গভীর যোগাযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে বিস্তারিত অনুসন্ধান চলছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার ৫০ হাজার ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা আবু ছৈয়দকে (২৩) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ওই দিন রাতে শাহেব মিয়া ওরফে নয়ন (২৪) ও মো. আকরাম (১৯) এবং শনিবার রাতে শফিউল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পূর্বকোণ/এএস/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট