চট্টগ্রাম বুধবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২২

৪ আগস্ট, ২০১৯ | ২:০২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

দূষণ, ডেঙ্গু, প্লাস্টিক, ফাস্টফুড ও মোবাইল আসক্তি

ছাত্রছাত্রীদের মুক্ত জীবনের সন্ধান দিলেন মুনীর চৌধুরী

জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর গতকাল শনিবার শতশত শিক্ষার্থীদের কলকাকলিতে মুখরিত হয়ে উঠেছিল। শিক্ষার্থীদের অর্থবহ জীবনের চেতনাবোধে উজ্জীবিত করলেন জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী। বিজ্ঞান জাদুঘরে গতকাল আমন্ত্রণ জানানো হয় ৩টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের। জাদুঘর পরিদর্শনশেষে শিক্ষার্থীদের সমবেত করে মুনীর চৌধুরী তাদের অনুপ্রেরণা যোগালেন সৎ ও শুদ্ধ জীবনের, টিভি-মোবাইলের আসক্তিমুক্ত জীবনের, ফাস্ট ফুড ও জাঙ্কফুড এবং প্লাষ্টিক ও পলিথিন মুক্ত জীবনের। একই সঙ্গে ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে পরিচ্ছন্ন জীবনযাপনের কথাও বললেন তিনি। শিক্ষার্থীদের জন্য এ এক অভূতপূর্ব প্রেরণা। নবম থেকে একাদশ শ্রেণির তরুণ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মুনীর চৌধুরী বললেন, ‘জ্ঞান বিজ্ঞান চর্চা করে তোমরা বিজ্ঞানী, গবেষক, চিকিৎসক ও প্রকৌশলী হবে। কিন্তু তোমরা যদি অবিরাম টিভি-মোবাইলে আসক্ত হয়ে পড়, ফাস্ট ফুডের লোভে ডুবে যাও, পরিবেশ দূষণের বিরুদ্ধে সচেতন না হও, সততা অনুশীলন না করো, তবে তোমাদের জ্ঞান মেধা ও সৃজনশীলতা ভঙ্গুর হয়ে যাবে। হিরোশিমা-নাগাসাকির আনবিক বোমার ধ্বংস যজ্ঞের মত তিলেতিলে ক্ষয়ে যাবে। তাই সুন্দর জীবন গড়ার শর্ত হলো, পড়াশোনায় গভীর মনোযোগ, নৈতিকতার অনুশীলন, জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চা, পিতা-মাতা ও শিক্ষকদের প্রতি শ্রদ্ধা এবং চারপাশের পরিবেশ রক্ষা। তোমাদের বাসা বাড়ির কাছেই থাকে অগণিত শহুরে চড়–ই পাখি। তোমাদের বারান্দায় নিয়মিত তাদের জন্য খাবার ছিটিয়ে দেবে। তাদেরও এ নগরে বেঁচে থাকার অধিকার আছে। বিজ্ঞানের উদ্ভাবন দিয়ে বাংলাদেশের মানচিত্রকে পৃথিবীর বুকে সম্মানজনক স্থান দিতে হবে। এক শিক্ষার্থী আবেগে আপ্লুত হয়ে বললো ‘আঙ্কেল, আমরা খুব অনুপ্রাণিত, আরো আসব এই জাদুঘরে’। শিক্ষকরাও আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন এ অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্যে। জাদুঘরে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয় রাজধানীর মাইলেস্টোন স্কুল এন্ড কলেজ, টাঙ্গাইলের ভারতেশ্বরী হোমস এবং বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রায় ৭০০ শিক্ষার্থী। প্রত্যেককে বিজ্ঞান জাদুঘরের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রীও দেয়া হয়।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 423 People

সম্পর্কিত পোস্ট