চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২

সর্বশেষ:

২২ জুন, ২০২২ | ২:০৬ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

নবজাতক মৃত্যুহার কমাবে কেএমসি

নবজাতকের মৃত্যুরোধে ক্যাংগারু মাদার কেয়ার বা কেএমসি অত্যন্ত উপযোগী পদক্ষেপ। নবাগত অসুস্থ বাচ্চা, অপরিপক্ক জম্ম নেওয়া বাচ্চার চিকিৎসা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের নবজাতক বিভাগে কেএমসির অইউনিটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বক্তারা। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. অং সুই প্রু মারমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন নবজাতক স্বাস্থ্যবিষয়ক জাতীয় টেকনিক্যাল ওয়ার্কিং কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোহম্মদ শহীদুল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ও লাইন ডাইরেক্টর ডা. শামসুল হক। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সহজে বাস্তবায়নযোগ্য বিভিন্ন পদ্ধতি যেমন এন্টিনেটাল কর্টিকোস্টেরয়েড (এসিএস), ক্যাংগারু মাদার কেয়ার (কেএমসি) এবং স্পেশাল কেয়ার নিউবর্ন ইউনিট (স্ক্যানু) ইতোমধ্যেই এ মৃত্যুরোধে কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। ক্যাংগারু মাদার কেয়ার বা কেএমসি প্রদানের গুণগতমান, ফলোআপ সুবিধার অপর্যাপ্ততা এবং কম সময় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে অবস্থানের প্রবণতাও সমীক্ষায় ওঠে আসে। তারা বলেন, নবজাতকের মৃত্যুরোধে কেএমসি অত্যন্ত উপযোগী পদক্ষেপ। এটি একটি কম ব্যয়সাপেক্ষ ও সহজ সমাধান হিসেবে বিবেচনা করা হয়। কিন্তু এই পদ্ধতির সঠিক প্রয়োগের জন্য চাই দীর্ঘ সময় শিশুকে মায়ের ত্বকের সংস্পর্শে রেখে সেবা দেওয়া ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়মিত পর্যবেক্ষণ। আপাদৃষ্টিতে একে সহজ সমাধান মনে হলেও এই পদ্ধতি বাস্তবায়নে আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন। নবজাতক মৃত্যু রোধে কেএমসিসহ অন্যান্য সেবা সহজলভ্য করার পাশাপাশি এর সুবিধা সম্পর্কে পরিবার ও কমিউনিটিকে অবহিত করাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।
নবজাতক বিভাগের চিকিৎসক ডা. কামরুল নাহার লুনার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. মো. শরীফুল ইসলাম, নবজাতক ও শিশু স্বাস্থ্য বিভাগের সদ্য বিদায়ী বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. জগদীশ চন্দ্র দাশ, নেফ্রোলজী বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. নুরুল হক, শিশু কিডনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. রেজাউল করিম, নবজাতক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডা. মোহাম্মদ শাহীন প্রমুখ।

পূর্বকোণ/এস

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট