চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

২৭ মে, ২০২২ | ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার সংবাদদাতা

পাহাড় কেটে নদী-খাল-ছড়া ভরাট

কক্সবাজারের পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

কক্সবাজারে পাহাড় কেটে নদী-খাল-ছড়া ভরাট করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রয়েছে। এতে বর্ষা মওসুমে লক্ষ লক্ষ মানুষের জন্য ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। এদিকে পাহাড় কেটে অবৈধভাবে নির্মাণাধীন একটি স্থাপনা আংশিক উচ্ছেদ ও ছড়া দখল করে স্থাপনা নির্মাণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাকারিয়া।

শুক্রবার (২৭ মে) বিকেলে কক্সবাজার সদর উপজেলা কমপ্লেক্সের পেছনের পাহাড়ে এবং বাইপাস সড়কের জেলগেট এলাকায় এ কার্যক্রম চালানো হয়।

এসময় কক্সবাজার সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জিল্লুর রহমানসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কক্সবাজার সদর উপজেলা কমপ্লেক্সের পেছনে পাহাড় কেটে অবৈধভাবে বহুতল ভবন নির্মাণ করে আসছিল রেজাউল করিম নামের এক ব্যক্তি। অভিযোগ পেয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ জাকারিয়ার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়ে আংশিক উচ্ছেদ করা হয়। পরে বাইপাস সড়কের জেলগেট এলাকায় পাহাড় কেটে ছড়া দখল করে নির্মিত ও নির্মাণাধীন অবৈধ স্থাপনা পরিদর্শন করা হয়। এসময় পাহাড় কেটে অবৈধভাবে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি তৈরি ও ছড়া দখল বন্ধে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন ইউএনও।

পরিবেশ বিষয়ক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এনভায়রনমেন্ট পিপল এর প্রধান নির্বাহী রাশেদুল মজিদ বলেন, ‘কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে শতাধিক পাহাড় কাটা চলছে। পাহাড় কেটে সমানতালে ঝুঁকিপূর্ণ স্থাপনাও নির্মাণ চলছে। এতে সম্ভাব্য পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে রয়েছে লাখ লাখ মানুষ। এছাড়া নদী-খাল-ছড়া ভরাট চলছে।’

পাহাড় কাটা ও নদী-খাল-ছড়া-নালা দখল বন্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান তিনি।

 

পূর্বকোণ/আরাফাত/মামুন/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট