চট্টগ্রাম বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২

সর্বশেষ:

২১ মে, ২০২২ | ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

শাটলের দিনগুলোর স্মৃতি রোমন্থন

ঘড়ির কাঁটা তখন রাত ৯টার ঘরে। অপেক্ষার প্রহর ভেঙে মঞ্চে এলেন ঝাঁকড়া চুলের রাহুল আনন্দ। গাওয়া শুরু করলেন তার ব্যান্ড দল ‘জলের গান’ এর জনপ্রিয় গান ‘এমন যদি হতো- আমি পাখির মতো’। মুহূর্তেই রাহুলের কণ্ঠের সঙ্গে মিলল আরও হাজার কণ্ঠ। চলন্ত শাটল ট্রেনে গলা ছেড়ে গাওয়ার মতো করে একসঙ্গে গাইতে শুরু করলেন উপস্থিত সবাই।
শুক্রবার রাতের এই চিত্র নগরীর প্রাণকেন্দ্র জিইসি এলাকার জিইসি কনভেনশন সেন্টারের। বিকাল থেকেই এই কনভেনশন সেন্টারে বসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলা। বর্ণাঢ্য র‌্যালি, স্মৃতিচারণ, গান আর নাচে এদিন বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের স্মৃতি রোমন্থন করেন সাবেক চবিয়ানরা। এতে চবির ৪ হাজারের বেশি সাবেক শিক্ষার্থী অংশ নেন।
‘রঙ ছড়িয়ে সবার মনে, ঈদ এলো আজ জনে জনে’ এই স্লোগানে ঈদ আনন্দ উৎসব হিসেবে এই মিলনমেলার আয়োজন করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন চিটাগং ইউনিভার্সিটি এলামনাই এসোসিয়েশন। 
উৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার। এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন চিটাগং ইউনিভার্সিটি এলামনাই এসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাবেক মুখ্য সচিব আব্দুল করিম, সাধারণ সম্পাদক ও চিটাগং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মাহবুবুল আলম এবং আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক শাহজাহান চৌধুরী। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের স্মৃতিচারণ করেন এলামনাই এসোসিয়েশনের সদস্যরা। 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, করোনা মহামারীর কারণে গত দুই বছর কোনো মিলনমেলার আয়োজন করেনি এলামনাই এসোসিয়েশন। ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে আয়োজিত এ আনন্দ উৎসব চবির সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে। আমরা আশাকরি ভবিষ্যতেও চবির সাবেক শিক্ষার্থীদের এমন আয়োজনে মুখরিত হবে চট্টগ্রাম।
অনুষ্ঠানে এ সময় উপস্থিত ছিলেন- মহাহিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী, চিটাগং ইউনিভার্সিটি এলামনাই এসোসিয়েশনের সদস্য এবং রাজনীতিক আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম, জহুরুল আলম, হানিফা নজিব হানা প্রমুখ।
গান পরিবেশন করে জনপ্রিয় ব্যান্ড দল-জলের গান, মাইলস ও শিল্পী শাফিন আহমেদ।

পূর্বকোণ/এস 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট