চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই, ২০২২

সর্বশেষ:

১৮ মে, ২০২২ | ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ

যুক্তরাজ্যে সরাসরি রপ্তানি নিতে আজ বন্দরে ভিড়ছে ‘এএমও’

সারোয়ার আহমদ

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে যুক্তরাজ্যের লিভারপুল বন্দরে সরাসরি রপ্তানি পণ্য নিতে আজ চট্টগ্রাম বন্দরে ভিড়ছে মঙ্গোলিয়ার পতাকাবাহী জাহাজ এএমও। এর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো উত্তর ইউরোপে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে সরাসরি জাহাজ চলাচল শুরু হতে যাচ্ছে। জাহাজটি চায়নার হুমেন বন্দর থেকে ৬০০ একক খালি কনটেইনার নিয়ে গত ৬ মে চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল। খালি কনটেইনার নামিয়ে জাহাজটি সাড়ে ৩শ থেকে ৪শ একক রপ্তানি কনটেইনার নিয়ে যুক্তরাজ্যের লিভারপুল বন্দরের উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম বন্দর ছেড়ে যাবে। ওই বন্দরে কিছু কনটেইনার নামিয়ে জাহাজটি বাকি কনটেইনার নেদারল্যান্ডসের রটারডাম বন্দরে নামাবে।

যুক্তরাজ্যের ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং ও শিপিং কোম্পানি অলসিজ গ্লোবাল লজিস্টিকস কোম্পানি এই সেবা চালু করছে। যার বাংলাদেশি এজেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ফিনিক্স শিপিং লিমিটেড।

এই রুটে তিনটি জাহাজ চালু করছে অলসিজ গ্লোবাল লজিস্টিকস কোম্পানি। এরমধ্যে আজ বন্দরে ভিড়ছে মঙ্গোলিয়া পতাকাবাহী জাহাজ এএমও। এছাড়া ৩০ মে আসার কথা রয়েছে লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী জাহাজ স্যান আলফনসো এবং আগামী ৯ জুন চট্টগ্রাম বন্দরে আসতে পারে এনটিগুয়া বারবুডা পতাকাবাহী জাহাজ বিবিসি ফিনল্যান্ড। এই তিনটি জাহাজ সরাসরি উত্তর ইউরোপের যুক্তরাজ্য ও নেদ্যারল্যান্ডে বাংলাদেশি রপ্তানি পণ্য পরিবহন করবে।

ফিনিক্স শিপিং লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন সৈয়দ সোহেল হাসনাত পূর্বকোণকে বলেন, এই জাহাজ সার্ভিসের মাধ্যমে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ২২ দিনের মধ্যে যুক্তরাজ্যে রপ্তনি পণ্য সারাসরি পৌঁছানো হবে। তিনটি জাহাজ নিয়মিত চলাচল করছে ট্রান্সশিপমেন্ট বন্দরগুলোর জ্যামে পড়তে হবে না রপ্তনি পণ্যকে। ফলে খরচ ও সময় দুটোই সাশ্রয় হবে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম থেকে প্রথমবার ইউরোপের ইতালিতে সরাসরি কনটেইনার জাহাজে পণ্য পরিবহনে সেবা চালু হয়। ইতালির ফ্রেইট ফরোয়ার্ডার প্রতিষ্ঠান রিফ লাইন এবং সহযোগী প্রতিষ্ঠান ক্যালিপসো কোম্পানিয়া ডি নেভিগেশন এই সেবা চালু করে। প্রতিষ্ঠানটি দুটি জাহাজে এ পর্যন্ত পাঁচবার আমদানি-রপ্তানি পণ্য আনা-নেওয়া করেছে, সময় লেগেছে ১৮ থেকে ২০ দিন। এরপর ইউরোপের আরও দুই গন্তব্যে আগামী মাসে সরাসরি জাহাজ সেবা চালুর ঘোষণা দেয় সুইজারল্যান্ডের সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান কমোডিটি সাপ্লাইস এজি। তারা চট্টগ্রাম থেকে স্পেন ও নেদারল্যান্ডসে সরাসরি কনটেইনার পণ্য পরিবহনের জন্য তিনটি জাহাজ নামাচ্ছে।

সরাসরি জাহাজ সেবা চালুর উদ্যোগে নীতিগত সহযোগিতা করছে চট্টগ্রাম বন্দর। সেজন্য একের পর এক প্রতিষ্ঠান এগিয়ে এসেছে। তাতে সিঙ্গাপুর ও কলম্বো বন্দর হয়ে রপ্তানিতে নির্ভরশীলতা কমবে। কারণ বর্তমানে চট্টগ্রাম থেকে ইউরোপ-আমেরিকামুখী রপ্তানি পণ্যবাহী কনটেইনার প্রথমে ছোট আকারের কনটেইনার জাহাজে সিঙ্গাপুর, শ্রীলঙ্কার কলম্বো, মালয়েশিয়ার পোর্ট কেলাং ও তানজুং পেলাপাস বন্দরে নেওয়া হয়। এই চারটি বন্দরে নামানোর পর বুকিং পেলে ইউরোপ-আমেরিকামুখী বড় জাহাজে তুলে দেওয়া হয়। এভাবে চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর বা শ্রীলঙ্কার বন্দর ঘুরে ইউরোপের দেশে কনটেইনার পণ্য পরিবহনে স্বাভাবিকভাবে সময় লাগে ২৪-২৮ দিন। তবে করোনার পর থেকে সিঙ্গাপুর বা শ্রীলঙ্কায় বড় জাহাজে বুকিং পেতে দেরি হওয়ায় কোনো কোনো ক্ষেত্রে এই সময় লাগছে ৩০ থেকে ৩৫ দিনের বেশি।

পূর্বকোণ/এস

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট