চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

সর্বশেষ:

২৯ জুলাই, ২০১৯ | ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

কণ্ঠনীড়ের বর্ষার অনুষ্ঠান ‘যারা বৃষ্টিতে ভিজেছিল’

বর্ষার রয়েছে বিচিত্র রূপ। যা মনকে করে আনমনা। এই বর্ষাকে নিয়ে বাচিক শিল্পচর্চা কেন্দ্র কণ্ঠনীড় আয়োজন করে ‘যারা বৃষ্টিতে ভিজেছিল’ অনুষ্ঠানের। গতকাল রবিবার সন্ধ্যে সাতটায় শিল্পকলা একাডেমির আর্ট গ্যালারিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ছিল কথামালা, একক, দ্বৈত ও বৃন্দ আবৃত্তি। সেলিম রেজা সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ টেলিভিশন জেনারেল ম্যানেজার নিতাই কুমার ভট্টাচার্য্য। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম-সম্পাদক রাশেদ হাসান। নিতাই কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, সাহিত্যাঙ্গনে বর্ষার প্রভাব সুগভীর ও স্থায়ী। যুগে যুগে কবিরা বর্ষাকে বিরহের ঋতু হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। বর্ষা এলে স্বভাবতই মানুষের মনে বিরহ দানা বাধতে থাকে। প্রিয়জনের শূন্যতাকে তোলে আরো দ্বিগুণ করে কী জল কী বর্ষা? বাদলের ধারায় বেদনার্ত হয়ে ওঠে মন। বর্ষার সংকটকেও উপেক্ষা করতে পারিনা আমরা। সারাদেশ বন্যায় প্লাবিত হয়েছে গৃহহীন হয়েছে অসংখ্য মানুষ। রাশেদ হাসান বলেন, আমরা বার বার বলছি একটা অস্থির সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। ভয়াল একটা অপশক্তি বিভিন্নভাবে নষ্ট করছে আমাদের সম্প্রীতি। ধর্মীয় উন্মাদনা-গুজব সৃষ্টির মাধ্যমে আক্রান্ত করছে আমাকে আপনাকে, এই দেশের সকল সাধারণ মানুষকে। এ সমস্ত সংকটকে তুচ্ছ করে এগিয়ে যেতে হবে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে রাখেন আহ্বায়ক রাজীব খান। কবিদের কণ্ঠে কবিতা পাঠ করে আমন্ত্রিত আবৃত্তি শিল্পী বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদ নির্বাহী সদস্য মাহবুবুর রহমান মাহফুজ, দেবাশীষ রুদ্র, তাসকিয়াতুন নুর তানিয়া, নরেন আবৃত্তি একাডেমির সভাপতি মিশফাক রাসেল, শব্দনোঙ্গরের হাসান জাহাঙ্গীর, আবৃত্তি চর্চাকেন্দ্রের এহ্তেশামুল হক, সন্দ্বীপনার মেজবাহ উদ্দিন, বোধনের সঞ্জয় পাল ও পলি পাল, প্রমার নাজমুল আলীম সাদেকি সুমন ও মুক্তধ্বনির শামসুদ্দিন রানা। ছোটরা পরিবেশন করে বৃন্দ আবৃত্তি বৃষ্টির গান তানিয়া নাসরিন এর গ্রন্থনা ও নির্দেশনা সেলিম রেজা সাগর। কণ্ঠনীড় সদস্যদের মধ্যে একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন আহনাফ আজমাইন মুনতাকা ইমাম, উইদাত ইমাম নাহিদা রওশন, দীপান্বিতা চৌধুরী, নুসরাত জাহান নুশা, অর্পিতা পাল শাহাব উদ্দীন, নুসরাত জাহানশামীমা আক্তার, আল-আমিন, জয়া রায় চৌধুরী ও তানিয়া নাসরিন, কানিজ ফাতেমা হীরা। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী মুন্নি চক্রবর্ত্তী। শেষে সেলিম রেজা সাগরের গ্রন্থনা ও নির্দেশনায় কণ্ঠনীড় বৃন্দ পরিবেশনা বাদল দিনের পদাবলী পরিবেশন করেন শাহাব উদ্দীন, শামীমা আক্তার ,আল-আমিন, তানিয়া নাসরিন, কানিজ ফাতেমা হীরা, রাজীব খান, দ্বীপান্বিতা চৌধুরী, জয়া রায় চৌধুরী ,নাহিদা রওশন, রিকু দে, অর্পিতা পাল, মনীষা মীরা, তাজুল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন তানিয়া নাসরিন, জয়া রায় চৌধুরী ও তাজুল ইসলাম।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 264 People

সম্পর্কিত পোস্ট