চট্টগ্রাম রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১

২৭ জুলাই, ২০১৯ | ২:১০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রেমিকাকে নিয়ে পালানোর কৌশল ভেস্তে দিল পুলিশ

এক সন্তানের পিতা মো. জামাল উদ্দিন (৩০)। বিবাহিত হলেও সম্প্রতি এক কলেজ পড়–য়া তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। নিজের বিবাহ গোপন রেখে গভীর প্রেমের টানে নতুন প্রেমিকাকে নিয়ে দেশান্তরী হওয়ার পরিকল্পনা ছিল দু’জনের। সুযোগে প্রবাসী মামার বাসায় চুরি করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।
তবে তাদের কৌশল ভেস্তে দিয়ে সবশেষ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয় এ প্রেমিকযুগল। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ফটিকছড়ি থানাধীন ধর্মপুর এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। এর আগে এ ঘটনায় জামাল উদ্দিনের মামা শহিদুল আলম বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ এক সপ্তাহের মাথায় জামাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ জানায়, বিগত ২৪ বছর যাবৎ দুবাই থাকেন প্রবাসী শহিদুল আলম। প্রতিবছর অন্তত একবার দেশে আসেন। সে সুবাদে গত ১৬ জুন নিজ বাসা মোহাম্মদপুরের বাসায় আসেন তিনি। এ বাসায় শহিদুল আলমের ভাগিনা জামাল উদ্দিন কেয়ারটেকার হিসেবে থাকেন। মামার কাছেও সে একজন বিশ^স্ত হিসেবে ছিলেন। তবে ওই তরুণীর সাথে জামালের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠার কারণে বিশ^াসের ঘরে চুরি করে দেশান্তর হওয়ার পরিকল্পনা করে জামাল।
গত ১৯ জুলাই সকাল আটটায় জামালকে ২০ ভরি স্বর্ণ দিয়ে সেগুলো বিক্রয় করে নগদ টাকা এনে দিতে বলে মামা শহিদুল। কিন্তু জামাল বাসা থেকে বের হওয়ার সময় স্বর্ণসহ নগদ আরও একলাখ ২০ হাজার টাকা নিয়ে প্রেমিকাকে সাথে নিয়ে আত্মগোপনে চলে যায়। নগরীর বিভিন্ন এলাকায়, ঢাকা, গাজীপুরসহ একাধিস্থানে থাকার পর গতকাল শুক্রবার জামালকে ফটিকছড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করে পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া পূর্বকোণকে বলেন, ‘ প্রেমিকাকে নিয়ে পালানোর কৌশল ভেস্তে দিয়ে চুরি করা মালামালসহ জামালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আগামীকাল (শনিবার) তাকে আদালতে পাঠানো হবে’।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 259 People

সম্পর্কিত পোস্ট