চট্টগ্রাম সোমবার, ০১ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৭ জুলাই, ২০১৯ | ২:০২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব সংবাদদাতা

খরুলিয়ার দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী ‘পুতু’ গ্রেপ্তার

কক্সবাজার খরুলিয়ার সেই দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী পুতু বাহিনীর প্রধান শওকত আলী পুতুকে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা পুলিশ। এসময় মিজানুর রহমান নামে তার এক সহযোগিকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কলাতলী বাইপাস সড়কের উত্তরণের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করেন সদর থানার এসআই প্রদীপ চন্দ্র দে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে তাদের আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে বলে পূর্বকোণকে নিশ্চিত করেছেন এসআই প্রদীপ। তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে মোটর সাইকেলসহ কলাতলী বাইপাস সড়ক থেকে পুতু ও মিজানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুতু’র বিরুদ্ধে মাদক ও পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় দু’টি মামলা রয়েছে এবং মিজানের বিরুদ্ধে একটি মাদক মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারের পর তাদের তল্লাশী করে একটি দেশিয় তৈরি বন্দুক, ২ রাউন্ড কার্তুজ ও ২০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া গেছে। গতকাল দুপুরে তাদের বিরুদ্ধে একটি অস্ত্র ও অপরটি মাদক মামলা দিয়ে আদালতে সোর্পদ করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। শওকত আলী পুতু খরুলিয়া বাজারপাড়ার ইউছুপ আলীর ছেলে এবং মিজানের বাসা রামুতে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ‘পুতু বাহিনী’র কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছিল খরুলিয়ার কয়েক গ্রামের সাধারণ মানুষ। পুতুর গ্রুপটি এক যুগের বেশি সময় ধরে মাদক ব্যবসা ও টাকার বিনিময়ে খুনসহ নানা অপকর্ম করেছে এলাকায়।
গত ৮ জুলাইও দিন-দুপুরে এক টমটম ড্রাইভার থেকে টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেন। এই বাহিনীটি দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় ধরে এলাকায় মাদক ব্যবসা, ভাড়াটে খুন, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, আধিপত্য বিস্তার, অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়, মোটরসাইকেল চুুরি ও সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ, জমির দখল পাইয়ে দেয়া, কাঠ ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ, অস্ত্র ব্যবসা ও ডাকাতি চালিয়ে আসছিল।
এ ব্যাপারে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকার বলেন, ‘খরুলিয়ায় প্রতিনিয়ত পুলিশী অভিযান জোরদার রাখা হয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় পুতু বাহিনীর প্রধান পুতুকে বাইপাস সড়ক থেকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। তার বাকি সহযোগিদের গ্রেপ্তারে অভিযানও চলছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 291 People

সম্পর্কিত পোস্ট