চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৭ জুলাই, ২০১৯ | ১:৪১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

বোধনের অমর ৫২ আবর্তনের নবীবরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা

শুদ্ধ সংস্কৃতি চর্চায় মানুষ সমৃদ্ধ হয়

আমরা যে কবিতার কথা বলি, এর ভেতরের যে বিশালতা আছে, যে গভীরতা ও অনুসঙ্গ আছে, তা আমাদের ভেতরের অনুভূতি জাগ্রত করে। শাণিত করে আমাদের বোধের সুপ্তচর্চার শুদ্ধতার পরিসর।
সকালটা শুরু হয় শ্রাবণের বৃষ্টি দিয়ে। তবে সেই বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেও দর্শকে ভর্তি ছিল থিয়েটার ইনিস্টিউটের হল রুম। বৃষ্টি উপক্ষো করেও দর্শকে হলের প্রত্যেকটি সিট তখন ভর্তি।
দেশের প্রথম আবৃত্তি স্কুল ‘বোধন’ আবৃত্তি স্কুলের অমর ৫২’র আবর্তনের প্রশিক্ষণার্থীদের নবীনবরণ আজ শুক্রবার (২৬ জুলাই) সকালে নগরীর থিয়েটার ইনিস্টিউটে অনুষ্ঠিত হয়।
নবীন প্রশিক্ষণার্থীদের এই আয়োজনে আমন্রিকুত অতিথি ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ও আবৃত্তিশিল্পী হাসান আরিফ, জনপ্রিয় অভিনেত্রী আফসানা মিমি, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান সাধারণ শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, বোধন সভাপতি সোহেল আনোয়ার, সহ-সভাপতি সুবর্ণা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এসএম আবদুল আজিজ।
সোহেল আনোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এসএম আবদুল আজিজ ও সুর্বণা চৌধুরী। পুরো আয়োজন উৎসর্গ করা হয় প্রয়াত সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রণজিৎ রক্ষিত স্মরণে।
অনুষ্ঠানে অভিনেত্রী আফসানা মিমি বলেন, আমরা ছেলেমেয়েদের পড়ার টেবিল থেকে ছুটি দিতে চাইনা। কিন্তু আজকে এখানে যে বাচ্চারা এসেছে তাদের অভিভাবকদের আমি ধন্যবাদ জানাই। ভাষার প্রতি যে ভালোবাসা তা আজ বাচ্চাদের প্রভাবিত করেছে। তোমরা যদি শক্ত করে হাল ধর তাহলে আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যাব।
তিনি আরো বলেন, এই মূহুর্তে আমরা অনেক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। বোধন শুদ্ধ করে কথা বলার, আবৃত্তি করার যে চর্চা এখানে সৃষ্টি করেছে সেই অগ্রযাত্রাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে হবে। সকল প্রতিবন্ধকতাকে জয় করতে হবে। সকল অসুন্দরকে জয় করে আলোয় ভরিয়ে দিতে হবে দেশটাকে।
আবৃত্তিশিল্পী হাসান আরিফ বলেন, বোধন এখানে সৃষ্টি হয়েছিল আঞ্চলিকতা থেকে মুক্ত হয়ে শুদ্ধ করে কথা বলার জন্য।
বোধন এখানে যখন প্রথম ভাষার চর্চা শুরু করে তখন থেকে আমি এখানে আসি। আমি যখন প্রথম আর্বতনের ছাত্রদের দেখেছিলাম তখন বুঝতে পেরেছিলাম ওরা আবৃত্তি যত শিখেছে, তার চেয়ে বেশি ওরা মানুষ হওয়া শিখে গেছে। কাজেই চট্টগ্রামে বোধন যে স্বপ্ন থেকে এখানে তৈরি হয়েছিল সেই স্বপ্নটাকে যদি তারা ধরে রাখতে পারে তাহলে তারা সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।
কথামালার পরই নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল ও ডায়েরি দিয়ে বরণের পর আমন্ত্রিত অতিথিরা প্রশিক্ষণার্থীদের কবিতার ভাব গাম্ভীর্যতা, শ্রবণশক্তি ও দৃষ্টিশক্তির ব্যবহার বিষয়ে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী প্রশিক্ষণে প্রাণবন্ত এক সময় অতিবাহিত করেছে।
অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন আবৃত্তিশিল্পী অনুপম শীল, ইভান পাল ও সেউঁতি মজুমদার।
অনুষ্ঠানে বোধনের শিশুবিভাগ বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ‘প্রভাতী’ কবিতাটি বৃন্দ পরিবেশনায় অংশ নেন। একক আবৃত্তিতে নবীনদের স্বতঃস্ফূর্ততায় জাগিয়ে তোলেন আবৃত্তিশিল্পী হাসান আরিফ এবং বোধন আবৃিত্ত স্কুলের প্রশিক্ষণ সম্পাদক সঞ্জয় পাল।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 287 People

সম্পর্কিত পোস্ট