চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৭ জুলাই, ২০১৯ | ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

হারুনুর রশিদ ছিদ্দিকী, পটিয়া

বন্যায় পটিয়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

সাম্প্রতিক প্রবল বর্ষণে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে পটিয়া উপজেলার ১৭ ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার রাস্তাঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট, বেড়িবাঁধ, মৎস্য পুকুর, বসতবাড়ি ও বিভিন্ন ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১৫ কোটি টাকার বলে উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানানো হয়।
উপজেলা ত্রাণ পুনর্বাসন কর্মকর্তা সূত্রে জানা যায়, সাম্প্রতিক বন্যায় প্রায় ১১ হাজার লোকের ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। এতে ৩৪০ বসতঘর সম্পূর্ণ বিধস্ত ও ১২শত ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া হাঁস-মুরগি প্রায় ৪৩ হাজার টাকা, বিভিন্ন ক্ষেত ফসল ৪ কোটি টাকা, পাকা সড়ক ১ কোটি ২০ লাখ, কাঁচা সড়ক ১১ লক্ষ টাকা ও ব্রিজ কালভার্টসহ প্রায় দেড় কোটি টাকা, বেড়িবাঁধ প্রায় ১ কোটি টাকা, ২ হাজার উৎপাদিত মাছের পুকুর ও পোনা পুকুরসহ ৮ কোটি টাকা ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাঘাট দ্রুত মেরামত করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দেয়ার জন্য হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি নির্দেশ দিয়েছেন। ইতিমধ্যে শ্রীমাই খালের বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু করা হয়েছে। বরাদ্দ পেলে পরবর্তীতে অন্যান্য রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার কাজ সহসা শুরু করা হবে বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাবিবুল হাসান জানিয়েছেন।
এদিকে সরকারিভাবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ২৫ মেট্রিক টন চাল ও ৫ শত প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া পটিয়ার এমপি ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরীর পক্ষ থেকে ১০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ৪ লক্ষ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। পরবর্তীতে ৩শত বান্ডিল ঢেউটিন ও ৯ লক্ষ টাকা এবং উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ঘরবাড়ি বিধস্ত ৫০ পরিবারকে ৫ হাজার টাকা করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তা অনুমোদন হলে সহসা এ টাকা ও ঢেউটিন বিতরণ করা হবে বলে পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হাবিবুল হাসান জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 296 People

সম্পর্কিত পোস্ট