চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২

সর্বশেষ:

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২ | ২:২৭ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

নান্দনিক ও বিলাসবহুল প্রকল্প নিয়ে কাজ করছে এপিক প্রপার্টিজ

আবাসন খাতে সবশ্রেণির মানুষের কাছে একটি বিশ্বাস এবং আস্থার নাম এপিক প্রপার্টিজ। গ্রাহকদের বিশ্বাস এবং আস্থা নির্ভরতায় চট্টগ্রামে কয়েকশ আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। আবাসিক ও বাণিজ্যিক স্থাপনা নির্মাণের পাশাপাশি রেডিমিক্স, ইঞ্জিনিয়ারিং, স্বাস্থ্য, নির্মাণ কনসাল্টিং-এ নিজেদের দক্ষতা এবং শৈল্পিকতার প্রকাশ ঘটাতে সক্ষম হয়েছে এপিক।

চট্টগ্রামের আবাসন শিল্পে নান্দনিক ও বিলাসবহুল সুযোগ সুবিধা নিয়ে নতুন নতুন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে আবাসন কোম্পানি এপিক প্রপার্টিজ লিমিটেড। সাম্প্রতিক সময়ে বাস্তবায়নাধীন এপিকের সকল প্রকল্পে একদিকে যেমন অনেকগুলো পরিবার বসবাস করার সুবিধা রেখেছে, তেমনি তাদের উন্নত জীবন ধারণের জন্য অত্যাধুনিক সব সুযোগ সুবিধা তৈরি করে দিচ্ছে এপিক। নতুন প্রকল্পসমূহে রাখা হয়েছে আধুনিক ব্যায়ামাগার, পারিবারিক ও সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য কমিউনিটি হল, বাস্কেট বল গ্রাউন্ড, জগিং এরিয়া, সুইমিং পুল, ডে কেয়ার সেন্টার, একাধিক ব্যাটমিন্টন কোর্ট, মুভি ক্লাব, লাইব্রেরি, ধর্ম সংস্কৃতি চর্চার সকল সুবিধাদি। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা ফিটনেস সেন্টার ও জিম সুবিধা, এটিএম বুথ, ফার্মেসি, সুপারশপসহ নানা আধুনিক নাগরিক সুবিধা। এছাড়া বাস্তবায়িত প্রকল্প রক্ষণাবেক্ষণে সারাজীবন দায়িত্ব পালন করবে এপিক।

বর্তমান সময়ে মানুষ খুবই ব্যস্তজীবন যাপন করে। এই ব্যস্ত জীবন ধারার সাথে মিল রেখেই আধুনিক লাইফ স্টাইলের সকল সুবিধাদি দিয়েই আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে এপিক। এপিকের প্রকল্প মানেই আধুনিক এবং বিলাসী লাইফ স্টাইল। একই প্রকল্পে যাপিত জীবনের সকল আধুনিক সুবিধা। এপিকের সাম্প্রতিক প্রতিটি প্রকল্পেই ৮০ থেকে ১০০টি পর্যন্ত পরিবারের বসবাসের সুযোগ থাকছে। আর এই বিপুল সংখ্যক পরিবারের জন্য সকল ধরনের আধুনিক নাগরিক সুবিধাও দেয়া হচ্ছে প্রতিটি প্রকল্পে। সুইমিংপুল থেকে শুরু করে স্বাস্থ্য সুরক্ষা, ডে কেয়ার সেন্টার, একাধিক ব্যাটমিন্টন কোর্ট, মুভি ক্লাব, লাইব্রেরি, ধর্ম সংস্কৃতি চর্চার সকল সুবিধাদি। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা ফিটনেস সেন্টার ও জিম সুবিধা, এটিএম বুথ, ফার্মেসি, সুপারশপসহ যাবতীয় সুবিধাদি।

চট্টগ্রাম মহানগরীর সবগুলো প্রাইম লোকেশনসহ নগরীর প্রায় প্রতিটি এলাকাতেই রয়েছে এপিক প্রপার্টিজের প্রকল্প। বর্তমানে এপিকের যেসকল আধুনিক প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন, নির্মাণ শেষের পথে বা নির্মাণ শেষ হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে নগরীর সাউথ খুলশী ইস্পাহানী হিলস এলাকায় ক্রাউন রিজ এপিক (রেডি), ক্রাউন ক্রেস্ট এপিক (চলমান), নগরীর বাদশামিয়া সড়কে এপিক ফেরদৌস উইন্ডসোর (চলমান), কালা মিয়া বাজার এলাকায় এপিক নুরল্যানড মার্ক (রেডি), লালখান বাজার চানমারী সড়কে এস এ সিদ্দিকী পার্ক (চলমান), চকবাজার পারসিভাল হিলে এপিক ভুইয়া ইম্পেরিয়াম (চলমান), নাসিরাবাদ হাউজিং এলাকার এপিক হুদা প্যালাসিও (চলমান), আসকার দীঘির পাড় এলাকায় গডস গিফটস এপিক ( চলমান), উত্তর সিরাজউদ্দোলা রোডের এপিক হাদি ক্যাসেল (চলমান), কাতালগঞ্জ আবাসিক এলাকার এপিক সালেহ সিয়েলো (রেডি)। রাজধানী ঢাকার কারওয়ান বাজারে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে স্টুডিও ২৩ নামের একটি আবাসন প্রকল্প। এছাড়া নির্মান কাজ চলমান রয়েছে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় এপিক মারুফা গার্ডেন এবং রামপুরা এলাকায় এপিক গফুর এনক্লেভ নামের দুটি আবাসন প্রকল্পের।

আবাসন শিল্পের নানা প্রতিকূলতা অতিক্রম করেই এই শিল্পের উন্নয়ন এবং মানুষের আস্থা অর্জনে শতভাগ সাফল্যের পথে অগ্রগামী এপিক প্রপার্টিজ। আগামী দিনে আরও আধুনিক এবং নান্দনিক বিলাসবহুল সব আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্রকল্প নিয়ে আসছে এপিক।

লেখক : নিজস্ব প্রতিবেদক

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট