চট্টগ্রাম বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২

১৮ জানুয়ারি, ২০২২ | ৪:১৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রামে চোরাই বাইক বিক্রির মূলহোতা স্ত্রীসহ ধরা

চট্টগ্রামের ইপিজেডে চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রির মূলহোতাসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তারা হলেন- ইপিজেড থানার আলীশাহ পাড়ার মো. আবু তাহেরের ছেলে মো. মামুন উর রশিদ (৪২) ও মামুনের স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩৬)।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দিাবগত রাত সাড়ে ১২টায় আলীশাহ পাড়া থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার। তিনি জানান, চোরাই মোটরসাইকেলে পুলিশ স্টিকার লাগিয়ে কেনা-বেচার উদ্দেশে ইপিজেড এলাকায় অবস্থান করছে একটি চক্র। এমন তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার দিবাগত রাতে ওই এলাকায় অভিযানে যায় র‌্যাব। এ সময় মামুন ও তার স্ত্রী আকলিমাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের কাছ থেকে একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, মামুন উর রশিদ পুলিশে চাকরি করতেন। পুলিশে কর্মরত থাকাকালে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের কারণে চাকরিচ্যুত হয়। এরপর থেকে তিনি বিভিন্ন ধরনের অপরাধে নিজেকে জড়িয়ে ফেলে। তিনি চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় চক্র পরিচালনা করতেন। পুলিশে চাকরির সুবাদে তার পরিচালিত চক্রের মাধ্যমে সংগ্রহ করা চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় করার সময় প্রত্যেকটি চোরাই মোটরসাইকেলের সামনে পুলিশ স্টিকার ব্যবহার করতো।

তিনি আরও জানান, চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় চক্রের সাথে প্রত্যক্ষভাবে তার স্ত্রী আকলিমা বেগম সহায়তা করে থাকে। এছাড়াও রাউজানের অভি এবং হালিশহর এলাকার অনিক তার চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় চক্রের অন্যতম সদস্য। তাদের প্রত্যক্ষ সহায়তায় চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় করে বিভিন্ন জায়গায় স্থানান্তর করে থাকে মামুন। জব্দ করা চোরাই মোটরসাইকেলটিও তার সহযোগী অনিকের মাধ্যমে সংগ্রহ করেছিল। তার পরিচালিত চক্রের মাধ্যমে সংগ্রহ করা চোরাই মোটরসাইকেলগুলো তার চক্রের অন্যতম সহযোগী অভির মাধ্যমে কাস্টমসের নকল কাগজপত্র তৈরি করে সেই কাগজপত্রের ভিত্তিতে মোটরসাইকেল বিক্রি করে থাকে।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট