চট্টগ্রাম রবিবার, ০৭ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২২ জুলাই, ২০১৯ | ১:৫২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্থায়ী ক্যাম্পাসের ভূমি উন্নয়ন কার্যের উদ্বোধন

স্বপ্নের সিঁড়ির আরেকটি ধাপে পা রাখল মেরিটাইম ভার্সিটি

সমুদ্র সম্পদ অনুসন্ধানে মেরিটাইম ভার্সিটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা
রাখবে : শিক্ষা উপমন্ত্রী

সমুদ্র সম্পদ গবেষণায় মেরিটাইম গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে উল্লেখ করে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, মেরিটাইম সংশ্লিষ্ট উচ্চশিক্ষার প্রসার, সমুদ্র গবেষণা, সম্পদ অনুসন্ধান ও আহরণে ভূমিকা রাখবে। পাশাপাশি প্রয়োজনীয় তত্ত্ব আবিষ্কার এবং আধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবন এবং দক্ষ জনবল তৈরির মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটি।
শুধু সমুদ্র গবেষণায়ই নয়, বরং দেশের ব্লু ইকোনমিতেও মেরিটাইম ভূমিকা রাখবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমরা যে অর্থনীতির কথা বলছি। সজীব ওয়াজেদ জয় জ্ঞাননির্ভর যে অর্থনীতির কথা বলে যাচ্ছেন অর্থাৎ ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে যে জ্ঞাননির্ভর অর্থনীতি হবে সেই অর্থনীতিতে আরেকটি মাত্রা পাবে ব্লু ইকোনমি। দেশের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা এবং ডেলটা প্ল্যান বাস্তবায়নে ব্লু-ইকোনমির গুরুত্ব বিবেচনায় এই বিশ^বিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
গতকাল রবিবার দুপুরে নগরীর পাঁচ তারকা হোটেল র‌্যাডিসন ব্লুতে দেশের একমাত্র মেরিটাইম পাবলিক বিশ^বিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসের ভূমি উন্নয়ন কার্যের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি রিয়ার এডমিরাল এম খালেদ ইকবালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।
উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা বড় চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের মেধার কোন অভাব নেই। কিন্তু উচ্চশিক্ষা যেভাবে বিদেশে মানুষের কাছে প্রতিফলিত হওয়া প্রয়োজন এবং শিক্ষার মান যতটুকু পাওয়া উচিত, তা শৃঙ্খলার অভাবে দেশের উচ্চশিক্ষায় আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জন সম্ভব হয়নি। এটি না পাওয়ার পেছনের আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি আমাদের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শৃঙ্খলা এখন আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বর্তমান সময়ে উচ্চশিক্ষা ও শিক্ষাখাতে শৃঙ্খলা বড় সংকট উল্লেখ করে এটিকে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি।
শিক্ষা উপ-মন্ত্রী নওফেল বলেন, এ বিশ^বিদ্যালয় যেভাবে শুরু করেছে, সেভাবে পরিচালিত হবে। এটি অবশ্যই তাঁর লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছাবে বলে আমি আশাবাদী। বিশেষ করে নৌবাহিনীর ১৫জন অফিসার এই বিশ^বিদ্যালয় পরিচালনার সঙ্গে আংশিক অথবা পুরোপুরিভাবে জড়িত থাকবেন। এতে করে শৃঙ্খলার যে সংকট সেটি এ বিশ^্যবিদ্যালয়ে থাকবে না। তিনি আরও বলেন, বিশ^বিদ্যালয় প্রকৃত অর্থে শিক্ষা প্রদানের প্রতিষ্ঠান নয়, এগুলো কিন্তু গবেষণা প্রতিষ্ঠান। আমরা যে বিশাল সমুদ্র সীমা অর্জন করেছি, সেখানে পাওয়া সম্পদের মধ্যে দিয়ে প্রযুক্তিগত ও জ্ঞানভিত্তিক গবেষণা করতে হবে। যাতে অতিমাত্রায় শোষণ এবং ব্যবহার করে শেষ না হয়, সেজন্য বিশ^বিদ্যালয়ে গবেষণা চালিয়ে যেতে হবে। একই সাথে মৎস্য বন্দরসহ যাবতীয় ব্যবস্থাকে কাজে লাগাতে হবে।
দেশের প্রথম এবং দক্ষিণ এশিয়ায় তৃতীয় ও বিশ্বের ১২তম মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে চট্টগ্রামের বন্দর থানাধীন চর বাকলিয়া ও চর রাঙামাটিয়া মৌজার হামিদচর এলাকায় ১০৬ একর জমিতে প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যা¤পাস। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে স্থায়ী ক্যাম্পাসের ভূমি উন্নয়ন কার্যের উদ্বোধন করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী।
স্বাগত বক্তব্যে বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর এম খালেদ ইকবাল বলেন, এ মেরিটাইম বিশ^বিদ্যালয় মানসম্মত উচ্চশিক্ষা ও দক্ষ জনবল সৃষ্টিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এখান থেকে যারা অধ্যয়ন করবেন তারা প্রত্যেকে একজন মেরিটাইম এক্সপার্টে পরিণত হবেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিশ^বিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ, চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী। এছাড়া চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যলয়ের ভিসি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক শিরীন আখতার, সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান, মাহফুজুর রহমান, সিডিএ চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, ডিন, প্রকল্প পরিচালকসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 613 People

সম্পর্কিত পোস্ট